অটোয়া, শনিবার ১৭ আগস্ট, ২০১৯
বাংলাদেশ দূতাবাসে আনন্দমুখর পরিবেশে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিবস উদযাপন – আশ্রম সংবাদ

১৭ই মার্চ, ২০১৮ বিকাল ৩-৩০ ঘটিকায় কানাডার রাজধানী অটোয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাসে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মদিবস ও জাতীয় শিশুদিবস অত্যন্ত আনন্দঘন পরিবেশে উদযাপন করা হয়। দূতাবাসের কাউন্সিলর ফারহানা চৌধুরীর উপস্থাপনায় দুই পর্বে বিভক্ত অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে ছিল চিত্রাঙ্কন ও রচনা প্রতিযোগিতা। অটোয়ায় বসবাসকারী শিশু-কিশোরদেরদেরকে নিয়ে প্রায় দেড় ঘন্টার মত এই প্রতিযোগিতাগুলো অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগিতার ফলাফল দূতাবাস কর্তৃক আয়োজিত আগামী ১৪ই এপ্রিল, ২০১৮ অনুষ্ঠিতব্য বৈশাখি মেলায় ঘোষণা করা হবে।

 

 

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট রাতে তাঁর পরিবারের শহীদ সদস্যবৃন্দ এবং মুক্তিযুদ্ধে আত্মত্যাগকারী সকল শহীদদের বিদেহী আত্মার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বিকাল ৫-১৫ ঘটিকায় অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বের শুরুতেই  জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মদিন উপলক্ষে ক্ষুদে ‘বঙ্গবন্ধু সৈনিক’ আবির সাইফুদ্দীনর ছয়টি ভাষায় ‘শুভ জন্মদিন তোমায় শেখ মুজিবুর রহমান’ গানটি পরিবেশনের পর রাষ্ট্রদূতপত্নী মিসেস নিশাত রহমান, শিশু-কিশোরদেরকে নিয়ে জন্মদিনের কেক কাটেন। এরপর দিনটি উপলক্ষে প্রেরিত বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বাণী পাঠ করে শোনানো হয়। বাণীগুলো পাঠ করেন যথাক্রমে, কাউন্সিলর মোঃ শাখাওয়াত হোসেন, দূতাবাস প্রধান কাউন্সিলর আলাউদ্দীন ভূঁইয়া, ও কাউন্সিলর শাকিল মাহমুদ। বাংলাদেশ থেকে প্রেরিত বাণী পাঠের পর উপস্থিত সুধীবৃন্দের পক্ষ থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বর্নাঢ্য রাজনৈতিক জীবন নিয়ে আলোচনা করেন যথাক্রমে, মুক্তিযোদ্ধা শিকদার মতিয়ার রহমান, অটোয়া আওয়ামী লীগ নেতা সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম খোকন, হারুন রশীদ, রাশেদা নাওয়াজ, ওমর সেলিম শের, ডক্টর মঞ্জুর চৌধুরী, অটোয়ার একমাত্র বাংলা পত্রিকা ‘আশ্রম’-এর সম্পাদক কবির চৌধুরী এবং কানাডায় নিযুক্ত বাংলাদেশ সরকারের রাষ্ট্রদূত মিজানুর রহমান। আলোচকগণ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রাজনৈতিক জীবনের আলোচনার পাশাপাশি বঙ্গবন্ধু কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকারের উন্নয়নের রাজনীতির ভূয়সী প্রশংসা করেন। এছাড়া সব আলোচকই কানাডায় অবস্থানকারী বঙ্গবন্ধু হত্যার সাথে জড়িত আত্মস্বীকৃত, সাজাপ্রাপ্ত, খুনী নূর চৌধুরীকে বাংলাদেশ সরকারের কাছে হস্তান্তর করার জন্যে কানাডার সাধারণ নাগরিকদের মাঝে জনমত তৈরির লক্ষে এবং কানাডীয় সরকারকে বাধ্য করার জন্যে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, কানাডা এবং বাংলাদেশ হাই কমিশন এর ‘সিগনেচার ক্যাম্পেইন’-কে বেগবান করার উপর জোর দেন । কানাডার বসবাসরত বাঙালিদের মাধ্যমে খুনী নূর চৌধুরীকে বাংলাদেশ সরকারের কাছে হস্তান্তরের ‘সিগনেচার কালেকশন’-কে স্বাগত জানিয়ে ‘আশ্রম’ সম্পাদক কবির চৌধুরী বলেন- ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মস্বীকৃত খুনী নূর চৌধুরীকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে নেওয়ার জন্যে, কানাডায় বসবাসকারী বাংলাদেশী, আওয়ামীলীগ কর্মী-নেতৃবৃন্দ, এবং কূটনৈতিক প্রচেষ্টা প্রশংসার দাবী রাখে। বর্তমানে আমরা ডিজিটেল যুগে বাস করছি। এই ‘সিগনেচার ক্যাম্পেইন’-কে ডিজিটেলাইজড করা যায়। আমরা Change.org এর মাধ্যমে কানাডার নাগরিকদের সিগনেচার কালেকশন করে খুনী নূর চৌধুরীকে বাংলাদেশ সরকারের কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করতে পারি’। সভাপতির বক্তব্যে রাষ্ট্রদূত মিজানুর রহমান উপস্থিত সুধীবৃন্দ, এবং চিত্রাঙ্কন ও রচনা প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী শিশু-কিশোরদের ধন্যবাদ জানিয়ে বঙ্গবন্ধুর জীবনাদর্শের আলোকে বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদৃঢ় নেতৃত্ব ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ হিসাবে পরিণত করতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। এছাড়া তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনী নূর চৌধুরীকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে নিতে বাংলাদেশ সরকার আপ্রাণ চেষ্টা করছে’। পরিশেষে আমন্ত্রিত অতিথিদেরকে চা চক্রে আপ্যায়ন করা হয়। 

অটোয়া, কানাডা