অটোয়া, সোমবার ২২ জুলাই, ২০১৯
সমালোচনা নয় বরং গঠনমূলক প্রশংসা ও নির্দেশনার ক্ষেত্র সৃষ্টি - ফারজানা নাজ শম্পা

 
মালোচনার তীব্ৰ ঝড় বইছে চতুর্দিকে। সর্বত্রই কে কার চাইতে বড় সমালোচক হবেন, অন্য কে কতটুকু হেয়  প্রতিপন্ন করবেন  তাঁরই এক অন্তহীন বোধশূন্য প্রতিযোগিতার কম বেশিপ্রকাশ আমরা দুঃখজনক ভাবে দেখতে পাই। প্রকৃত অর্থে ভালো কিছু করার তাগিদ বা বলার দিকটি দিনদিন ক্রমান্বয়ে বিলীন হয়ে পড়ছে যেন। পারস্পরিক বিভ্রান্তির, অবহেলা আর তাচ্ছিল্যের এই সংষ্কৃতিতে আবর্তিত ঝড়ো বাতাসে মুখ থুঁবড়ে পড়ছে সমাজের অনেক সুশীল, সৃষ্টিশীল সুন্দর উদ্যোগ আর নব প্রয়াস। এহেন দোদুল্যমান পরিস্থিতিতে একজন যদি সমালোচক নয় বরং শুধুমাত্র উৎসাহদাতা/ দাত্রী ও ইতিবাচক অনুপ্রেরণার উৎস রূপে আবির্ভুত হন তবে সেটি কি আদৌ বেমানান হবে ? আর যদি তা বোকামির নামান্তর হয় তবে আমি বর্তমানে সেই বোকাদের দলে ভিড়তে বিশেষভাবে আগ্রহী একজন। তবে একটি বিষয়ে আমি একমত যে প্রশংসা আর চাটুকরারিতা মধ্যে বিস্তর ফারাক আছে।
এখন প্রশ্ন উঠতেই পারে তবে সমালোচনা করা  কি চলবেই না, আমি বিশ্বাস করি তা অবশ্যই করা উচিত তবে তা নির্দিষ্ট পরিসীমার মধ্যে থেকে করা উচিত। তবে  ক্ষেত্র বিশেষে তীর্যক ও কঠোর ভাবে সমালোচনা চলতে পারে। যেমন কুশিক্ষা,ধর্মান্ধতা, মিথ্যাচার, বর্ণবাদ, সাম্প্রদায়িক বিভাজন, প্রতি বৈষম্য, শিশু ও মানুষের প্রতি নির্যাতন, অশ্লীলতা, নির্যাতনের, নির্মমতার বিরুদ্ধে কঠোর একজন সমালোচক রূপে অবতীর্ন হয়ে প্রতিবাদী দৃষ্টিভঙ্গি ধারণ করা বাঞ্ছনীয়। সামাজিক ভারসাম্য ও সভ্যতার স্থিতি,বৃহত্তর মানব কল্যাণের স্বার্থে এর প্রয়োজনীয়তাও অনেক। একজন নৈতিক সু-বোধসপন্ন মানুষ মাত্রেই তা করবেন। 
সর্ববিষয়ে একজন সমালোচক হলে আপনি একজন নিখাদ বোদ্ধা, জ্ঞানীজন আর অনুপ্রেরণার উৎসরূপে প্রশংসা করলেই আপনি একজন নির্বোধ অথবা স্বল্পজ্ঞান সপন্ন মানুষে পরিণত হলেন এই ধারণা নিতান্তই হাস্যকর  এবং সংকীর্ণ এক মনোভাবের প্রকাশ মাত্র। এই একপেশে মানসিকতার বলয় থেকে আমাদের বের হওয়া প্রয়োজন। আমি বিশ্বাস করি রাষ্ট্র সমাজ ও মানুষের প্রকৃত সফলতার মূলমন্ত্র বা চাবিকাঠি অনেকাংশেই নিহিত আছে আমাদের জীবনে ও অপর মানুষের প্রতি যথা সম্ভব ইতিবাচক মনোভাব পোষণ করার উপর। ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গিরই আবহেই জীবনের পূর্ণতার আস্বাদ পাওয়ায় যায়। যুক্তরাষ্ট্রের সংগীতজ্ঞ ম্যাট ক্যামেরনের মতে  Live life to the fullest and focus on the positive —Matt Cameron 
ব্যক্তিভেদে শিক্ষাগত যোগ্যতা, অভিজ্ঞতা, চিন্তারপ্রবাহ, এক স্তরের নয় আর সেটি হওয়া প্রায় অসম্ভব। তবে অপরজন কে  আপাদমস্তক মূর্খ রূপে গণ্য করা যে নিজের  নির্বুদ্ধিতারই  নামান্তর এবং তা অনুভব করার মতো ঔদার্য ধারণ করা বিশেষ প্রয়োজন। বর্তমানের  আমাদের প্রায় নুয়ে পড়া অসহনশীল মানবজাতির সমন্বয়ে গঠিত নড়বড়ে সমাজে কাঠামোর পরিবর্তে সুদৃঢ বুনিয়াদের মানবিক বোধ  অধিবাসীর সমন্বয়ে সৃষ্ট  রাষ্ট্রযন্ত্র গঠনের জন্য এই মনোভাব বিশেষ সয়াহক। 
অপর কে কটাক্ষ বা আঘাত করার আগে নিজের সীমাবদ্ধতা গুলি কে সুনির্দিষ্ট ভাবে চিহ্নিত করা প্রয়োজন। একথা সত্য যে গঠনমূলক সমালোচনা আমাদের নুতনভাবে  শিখতে সাহায্য। তবে এর তীর্যকপ্রকাশ  রূপে যখন নির্মম সমালোচনা  স্থান নেয় তা অনেক সুন্দর উদ্দেশ্যকেই ভণ্ডুল করে দেয়। এই নেতিবাচকতার  রেশ ছড়িয়ে পরে সমাজের সর্বত্রই।  তা থেকে ক্রমশই জন্ম  নেয় হতাশায় জর্জরিত  হীনমনতার জালেজড়িত বিক্ষুদ্ধ ও মানবিকতা বিহীন একটি বিভ্রান্ত প্রজন্ম।  আমাদের স্ব স্ব ক্ষেত্র ও ক্ষমতা থেকে সৃষ্টিশীল নব কল্যানমুলক প্রয়াস কে বারবার উৎসাহ দিতে হবে, এক্ষেত্রে কালীপ্রসন্ন ঘোষের  সেই বিখ্যাত বাণী উদ্ধৃত করার তাড়না অনুভব করছি l
‘পারিব না একথাটি বলিও না আর, কেন পারিবেনা তাহা ভাবো একবার , পাঁচজনে পারে যাহা তুমিও পারিবে তাহা, পার কিনা পারো কর যতন আবার, একবার না পারিলে দেখো শতবার’, আমার জীবনের বন্ধুর পথ পরিক্রমায় সৌভ্যাগ্যক্রমে আমি বিভিন্ন ক্ষেত্রে অপার সম্ভাবনায়ময় অনেক  ব্যক্তিত্বের সান্নিদ্য লাভ করেছি   যারা অবহেলার কারণে   হারিয়ে গেছেন  লোকচক্ষুর অন্তরালে।  অনেকেই  বারবার বহুমাত্রিক অসহযোগিতায় নিরাশ হয়ে আত্মভিমানবশত সর্বসম্মুখে আসেননি  অথবা নিঃশেষ হয়েছেন সামান্য ইতিবাচক সুন্দর একটি ক্ষেত্র পরিবার ও পরিবেশ সৃষ্টির অভাবে। আমরা কি চাই এমন একটি সমাজ ও দেশ গড়তে যেক্ষেত্রে নেতৃত্বে থাকবে স্বার্থলোভী, বিভ্রান্ত, মিথ্যাচারী বোধহীন কিছু মানুষ ?   
তাই সর্বশক্তিমানের 'আশরাফুল মাখলুকাত 'বা সৃষ্টির সেরা জীব মানুষরা  শুভ সুন্দর চেতনার আলোকে আলোকিত হয়ে পরস্পরের কল্যাণকর্ম ও সৃষ্টিশীলতার প্রতি প্রশংসার, ভালোলাগার ক্ষেত্র সৃষ্টি করে এই অসহনশীল হিংসার সংষ্কৃতিতে বিকশিত অস্থির সমাজ কে ঢেলে সাজানো একান্তভাবে কাম্য। সকলের জন্য অফুরান শুভ কামনা রইলো।

ফারজানা নাজ শম্পা 
লেখক, উপদেষ্টা ও হ্যালিফ্যাক্স সংবাদ প্রতিনিধি, সি বি এন ২৪ 
Halifax, Canada.
abraraafi@yahoo.ca
abraraafi@yahoo.ca