অটোয়া, সোমবার ২২ জুলাই, ২০১৯
আপনার সন্তানের ভবিষ্যৎ শিক্ষা-খরচ ও নিবন্ধিত শিক্ষা সঞ্চয় পরিকল্পনা (আরইএসপি)

পনার কাছে “রেজিস্টার্ড এ্যাডুকেশন সেভিং প্ল্যান(আরইএসপি)” বা “নিবন্ধিত শিক্ষা সঞ্চয় পরিকল্পনা” একটি নতুন ধারণা মনে হতে পারে, কিন্তু সত্যি বলতে কানাডিয়ান সরকার ১৯৭২ সালে, প্রথম এই প্রোগ্রামটি চালু করে। কানাডিয়াদেরকে সন্তানের পোস্ট-সেকেন্ডারি শিক্ষায় উৎসাহ প্রদানের লক্ষ্যে ফেডারেল সরকার এই পরিকল্পনা গ্রহণ করে এবং এটিই মুলতঃ আরএসপি-র পিছনের মূল ধারণার সমর্থন করে। শুরুতে এই প্রোগ্রমাটি খুব একটা জনপ্রিয়তা পায়নি, তবে সময়ে-সময়ে বিধি-বিধাণের সহজিকরণ ও সরকারের বিবিধ অনুদান ও সুযোগ সুবিধা বাড়ানোর ফলে সন্তানের পোস্ট-সেকেন্ডারি শিক্ষাখরচ মেটানোর জন্য আরইএসপি ধীরে ধীরে কানাডিয়ানদের কাছে লোভনীয় হয়ে উঠে। একদিকে পোস্ট-সেকেন্ডারি শিক্ষার খরচ বৃদ্ধি এবং অন্যদিকে ফেডারেল সরকারের ব্যাপক অনুদান প্রদানের ফলেই বিগত এক দশকে আরইএসপি কানাডিয়ানদের কাছে আকর্ষণীয় হয়ে উঠে। পরিসংখ্যান অনুযায়ী ২০১৬ সালে আঠরো বছরের কম বয়সী ৫১.৩% কানাডিয়ান আনুমানিক ৩.৫৯ মিলিয়ন শিশুর জন্য আরইএসপি-তে বিনিয়োগ বা অবদানের পরিমাণ ৪.৪৩ বিলিয়ন ডলার, আর শুরু থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত আরইএসপি-তে মোট বিনিয়োগের পরিমান ৫১.৩ বিলিয়ন ডলার এবং এই বিনিয়োগের বার্ষিক গড় বৃদ্ধির পরিমাণ প্রায় ২০%।  

বর্তমানে অধিকাংশ কানাডিয়ানদের সন্তানের ভবিষ্যৎ উচ্চ-শিক্ষার-অর্থ সঞ্চয়ের সহজ উপায় হল একটি আরইএসপি। কেননা আপনি আরইএসপি-তে যে অর্থ বিনিয়োগ করেন এবং সরকার যে সকল অনুদান প্রদান করে তা সন্তানের পোস্ট-সেকেন্ডারি শিক্ষার অর্থের প্রয়োজন না হওয়া পর্যন্ত ক্রমান্বয়ে করমুক্ত বৃদ্ধি পেতে থাকে। আইএসপি-র সবচেয়ে আকর্ষণীয় বিষয় হলো ফেডারেল সরকারের “কানাডা এ্যাডুকেশন সেভিং গ্রান্ট(সিইএসজি)” বা “কানাডা শিক্ষা সঞ্চয় অনুদান”। এই অনুদানের পরিমাণ প্রতি বছর সর্বোচ্চ ৫০০ ডলার বা আপনার অবদানের প্রথম ২,৫০০ ডলারের ২০%। অর্থাৎ আপনি যদি কোন এক বছরে ২,৫০০ ডলার বিনিয়োগ করেন তবে ৫০০ ডলার সিইএসজি অনুদান পাবেন। এই অনুদান আপনার সন্তানের ১৭ বছর পর্যন্ত প্রদান করা হবে এবং বিনিয়োগের বিপরীতে প্রতি সন্তানের জন্য লাইফ-টাইম লিমিট সর্বোচ্চ সিইএসজি অনুদান ৭,২০০ ডলার।   

তবে নিম্ন আয়ের পরিবারের জন্য সরকার আরো বেশ কিছু অনুদানের ব্যবস্থা রেখেছে। নিম্ন আয়ের পরিবার প্রতি বছর আরইএসপি তাদের প্রথম ৫০০ ডলার বিনিয়োগের বিপরীতে অতিরিক্ত ২০% অনুদান পাবেন। অর্থাৎ অতিরিক্ত ১০০ ডলার সিইএসজি অনুদান পাবেন। সেই অনুযায়ী নিম্ন আয়ের পরিবার যদি কোন এক বছর একটি আরইএসপি-তে ২,৫০০ ডলার বিনিয়োগ করে তবে ঐ পরিবার সর্বমোট ৬০০ ডলারের “কানাডা শিক্ষা সঞ্চয় অনুদান” পাবে। সর্বোপরি যে সকল পরিবার ‘ন্যাশনাল চাইল্ড ব্যানিফিট সাপ্লিম্যান্ট’ পান তাদের সন্তানদের জন্য রয়েছে “কানাডা লার্নিং বন্ড(সিএলবি)”। সিএলবি-এর আওতায় সংশ্লিষ্ট পরিবার তাদের সন্তানদের জন্য আরইএসপি এ্যাকাউন্ট খোলার বছর ৫০০ ডলারের সিএলবি অনুদান পাবেন এবং সন্তানের ১৫ বছর বয়স পর্যন্ত প্রতি বছর ১০০ ডলার করে লাইফ-টাইম লিমিট সর্বোচ্চ ২,০০০ ডলারের সিএলবি অনুদান পাবেন। তাই আপনার সন্তানের উচ্চ-শিক্ষার অর্থ সঞ্চয়ের জন্য আরইএসপি অতুলনীয় এবং আপনাদের জানার সুবিধার্থে আরইএসপি সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত ধারণা নিম্নে উপস্থাপন করা হলো।      

রেজিস্টার্ড এ্যাডুকেশন সেভিং প্ল্যান(আরইএসপি) কিঃ-  নিবন্ধিত শিক্ষা-সঞ্চয় পরিকল্পনা একটি আর্থিক টুলস্‌ যা বিশেষভাবে আপনার  সন্তানের পোস্ট-সেকেন্ডারি শিক্ষার জন্য পুঞ্জীভূত সঞ্চয় বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। এটি কানাডা রেভ্যিনিউ এজেন্সি (সিআরএ) এর সাথে নিবন্ধিত একটি হিসাব। আপনার সন্তানের পোস্ট-সেকেন্ডারি শিক্ষাখরচ বহনের জন্য কানাডার ফেডারেল সরকার আপনার বিনিয়োগ, বিবিধ সরকারী অনুদান এবং ক্রমপুঞ্জীভ‚ত মুনাফাসহ সকল অর্থ উত্তোলনের পূর্ব পর্যন্ত আরইএসপি-তে করমুক্ত বৃদ্ধি পেতে সহায়তা করে।  তাই আপনার সন্তানের ভবিষ্যৎ শিক্ষা-খরচের সঞ্চয়ের জন্য আরইএসপি হচ্ছে একটি সর্বোত্তম পন্থা। আপনার সুবিধানুযায়ী এই আরইএসপি এ্যাকাউন্ট যে কোন ব্যাংক, আর্থিক পরিকল্পনাকারী প্রতিষ্ঠান বা বীমা কোম্পানীর সাথে খুলতে পারেন। তবে প্রতিষ্ঠান ভেদে সুযোগ সুবিধার পার্থক্য এবং সরকারের নানাবিধ নিয়ম কানুন যথাযথ অনুসরণ করে সর্বাধিক সুবিধা ও সঞ্চয় বৃদ্ধির জন্য আরইএসপি-তে অবদান বা বিনিয়োগের পূর্বে একজন দক্ষ ফিনান্সিয়াল এ্যাডভাইজারের পরামর্শ গ্রহণ করা শ্রেয়।

আরইএসপি যে ভাবে কাজ করেঃ- 

 ১। গ্রাহকঃ- সাবস্ক্রাইবার বা গ্রাহক হচ্ছে সেই ব্যক্তি যিনি চুক্তিবদ্ধ হয়ে একটি আরইএসপি এ্যাকাউন্ট খুলে তাতে বিনিয়োগ/অবদান রাখেন। কানাডায় স্থায়ীভাবে বসবাসরত এবং সোস্যাল ইন্স্যুরেন্স নম্বর (এসআইএন) প্রাপ্ত যে কোন ব্যাক্তি ব্যাংক বা বীমা কোম্পানির সাথে আরইএসপি এ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। সাধারণত মা-বাবা, দাদা-দাদী বা নানা-নানী তাদের সন্তান বা নাতি-নাতনিদের ভবিষ্যৎ পোস্ট-সেকেন্ডারি শিক্ষার খরচ সঞ্চয়ের লক্ষ্যে আরইএসপি এ্যাকাউন্ট খুলে তাতে অর্থ বিনিয়োগ/সঞ্চয় করেন।
         ২। সুবিধাভোগীঃ- বেনিফিসিয়ারী বা সুবিধাভোগী হচ্ছেন তিনি, যিনি বিবিধ সরকারী অনুদানসহ আরইএসপি-তে ক্রমপুঞ্জীভূত মুনাফা বা লভ্যাংশের সুবিধা ভোগ করেন। মুলতঃ বেনিফিসিয়ারীর সোস্যাল ইন্স্যুরেন্স নম্বর-এর বিপরীতেই ফেডারেল সরকার বিভিন্ন অনুদান প্রদান করে। ২১ বছরের নিচে যে কোন শিশুকে আরএসপির বেনিফিসিয়ারী হিসেবে মনোনয়ন করা যায় তবে মনোনয়নের সময় শিশুটিকে কানাডার বাসিন্দা হতে হবে এবং অবশ্যই তাঁর সোস্যাল ইন্স্যুরেন্স নম্বর (এসআইএন) থাকতে হবে। মুলতঃ গ্রাহকই বেনিফিসিয়ারী মনোনয়ন করেন এবং প্রয়োজন অনুযায়ী গ্রাহক বেনিফিসিয়ারী পরিবর্তন, সংযোজন বা বিয়োজন করতে পারেন। তবে শুধুমাত্র গ্রাহকের নিজ বা দত্তককৃত সন্তান বা নাতি-নাতনিকে আরইএসপি’র বেনিফিসিয়ারী হিসাবে মনোনয়ন করতে পারেন।  

৩। প্রবর্তকঃ- প্রতিষ্ঠান বা প্রবর্তক হচ্ছে সেই সকল প্রতিষ্ঠান যারা জনসাধারণের কাছে আরইএসপি-র প্রস্তাব দেয় ও বিতরণ করে। প্রবর্তকই গ্রহকের বিনিয়োগ, সরকারী অনুদানসহ অর্জিত ও ক্রমপুঞ্জীভূত মুনাফা গ্রহণ ও সংরক্ষণ করে এবং আরইএসপিতে জমাকৃত অর্থ যথাযথ বিনিয়োগ করে গ্রহকের মুনাফা/লভ্যাংশ বৃদ্ধির ব্যবস্থা করে। সর্বোপরি প্রবর্তকই বেনিফিসিয়ারীর পোস্ট-সেকেন্ডারি শিক্ষার সময় তাকে আরইএসপি হতে শিক্ষা সহায়তা অনুদান প্রদান করে এবং যথাসময়ে গ্রাহকের অবদান বা বিনিয়োগকৃত অর্থ ফেরৎ প্রদান করে।  

৪। ট্রাস্টিঃ- স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কানাডার আয়কর আইন অনুযায়ী যেকোন প্রবর্তক বা প্রতিষ্ঠানের আরইএসপি-তে জমাকৃত সকল অর্থ লাইসেন্স প্রাপ্ত ট্রাস্ট কোম্পানি কর্তৃক পরিচালিত হয়। অর্থাৎ প্রবর্তক কোন ভাবেই আরইএসপিতে জমাকৃত অর্থ তার নিজস্ব হিসাব বা তহবিলের সাথে সংযুক্ত করতে পারে না, তাকে অবশ্যই ট্রাস্ট কোম্পানির কাছে আরইএসপির সকল অর্থ হস্তান্তর করতে হয়। ট্রাস্টি মুলতঃ প্রবর্তক প্রতিষ্ঠান কর্তৃক নিযুক্ত, আবার প্রবর্তক নিজেই লাইসেন্স গ্রহণ করতঃ একটি পৃথক ট্রাস্ট কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করে উক্ত কোম্পানিকেই ট্রাস্টি হিসেবে নিয়োগ দিতে পারে। 

আরইএসপি-তে বিনিয়োগ বা অবদানঃ-  বর্তমানে আরইএসপি-তে বিনিয়োগ বা অবদানের বার্ষিক কোন সীমা নেই, তাই আপনি কোন এক বছর যতটা চান ততটাই আরইএসপি-তে অবদান বা বিনিয়োগ করতে পারেন। তবে প্রতি সন্তান বা বেনিফিসিয়ারী জন্য আরইএসপি-তে লাইফ-টাইম লিমিট সর্বোচ্চ বিনিয়োগ বা অবদানের পরিমান ৫০,০০০ ডলার। অর্থাৎ প্রতি সন্তানের জন্য আপনি আরইএসপি-তে সর্বোচ্চ ৫০,০০০ ডলার অবদান বা বিনিয়োগ করতে পারবেন। তবে, আরইএসপি এ্যাকাউন্ট সর্বোচ্চ ৩৫ বছর পর্যন্ত পরিচালনা করা যায় এবং কোন একক আরইএসপি-তে বেনিফিসিয়ারী বা সন্তানের ৩১ বছর বয়স পর্যন্ত অবদান বা বিনিয়োগ করা যায় কিন্তু বেনিফিসিয়ারী বা সন্তনের ১৭ বছর বয়সের পর আরইএসপি-তে সরকার কোন প্রকার অনুদান প্রদান করে না। উল্লেখ্য, আরইএসপি-র বিনিয়োগ বা অবদান ট্যাক্স-ডিডাকটেবল/আয়কর হতে কর্তণ যোগ্য না, আবার আরইএসপি-তে বিনিয়োগ বা অবদানের জন্য আপনি যদি কোন ঋণ নেন উক্ত ঋণের সুদও আপনার প্রদেয় আয়কর হতে কর্তণ যোগ্য নয়।  

কানাডা এ্যাডুকেশন সেভিং গ্রান্ট(সিইএসজি) বা কানাডা শিক্ষা-সঞ্চয় অনুদানঃ-  প্রতিটি শিশুর জন্য ফেডারেল সরকার আরইএসপি-তে নির্ধারিত পরিমাণ “কানাডা এ্যাডুকেশন সেভিং গ্রান্ট(সিইএসজি)” প্রদান করে। শিশুর জন্মের পর হতে ১৭ বছর বয়স পর্যন্ত এই গ্রান্ট প্রদান করা হয়। এই গ্রান্ট সরাসরি শিশু বা বেনিফিসিয়ারীর এসআইএন-এর বিপরীতে আরইএসপি-তে প্রদান করা হয় এবং শিশু বা বেনিফিসিয়ারী তার পোস্ট-সেকেন্ডারি শিক্ষার সময় এই অনুদান ও ক্রমপুঞ্জীভূত মুনাফা উত্তোলন করতঃ প্রয়োজন অনুযায়ী খরচ করতে পারে। ফেডারেল সরকারের এই সিইএসজি-র পরিমান শিশু প্রতি বছরে সর্বোচ্চ ৫০০ ডলার বা আপনার বিনিয়োগের প্রথম ২,৫০০ ডলারের ২০%। অর্থাৎ আপনি যদি কোন এক বছরে ২,৫০০ ডলার অবদান বা বিনিয়োগ করেন, তবে ৫০০ ডলার সিইএসজি অনুদান পাবেন এবং আপনার বিনিয়োগের বিপরীতে প্রতি সন্তানের জন্য লাইফ-টাইম লিমিট সর্বোচ্চ  সিইএসজি অনুদানের পরিমান ৭,২০০ ডলার।    

তবে নিম্ন ও মধ্যম আয়ের পরিবারের জন্য ফেডারেল সরকার অতিরিক্ত কিছু সিইএসজি অনুদানের ব্যবস্থা রেখেছে। বর্তমানে (২০১৭ সাল অনুযায়ী) যে সকল পরিবারের নেট-ফ্যামেলী ইনকাম ৪৫,৯১৭ ডলার বা তার কম, সেই সকল পরিবার সন্তান প্রতি বছরে আরইএসপি তাদের প্রথম ৫০০ ডলার বিনিয়োগ বা অবদানের বিপরীতে অতিরিক্ত ২০% অনুদান পায়। অর্থাৎ অতিরিক্ত ১০০ ডলার সিইএসজি অনুদান পান। সেই অনুযায়ী নিম্ন আয়ের পরিবার যদি কোন এক বছর একটি আরইএসপি-তে ২,৫০০ ডলার বিনিয়োগ করেন, তবে ঐ পরিবার সর্বমোট ৬০০ ডলারের “কানাডা শিক্ষা-সঞ্চয় অনুদানİ পাবে। আবার যে সকল পরিবারের নেট-ফ্যামেলী ইনকাম ৪৫,৯১৭ থেকে ৯১,৮৩১ ডলার, সেই সকল পরিবার সন্তান প্রতি বছরে আরইএসপি তাদের প্রথম ৫০০ ডলার বিনিয়োগ বা অবদানের বিপরীতে অতিরিক্ত ১০% অনুদান পাবে। অর্থাৎ অতিরিক্ত ৫০ ডলার সিইএসজি অনুদান পান। তাই মধ্যম আয়ের পরিবার যদি কোন এক বছর একটি আরইএসপি-তে ২,৫০০ ডলার বিনিয়োগ করেন, তবে ঐ পরিবার সর্বমোট ৫৫০ ডলারের “কানাডা শিক্ষা-সঞ্চয় অনুদানİ পাবে। তবে আপনার নেট-ফ্যামেলী ইনকাম যাই হোক না কেন সিইএসজি-র পরিমান আরইএসপি-তে আপনার বিনিয়োগ বা অবদানের প্রথম ২,৫০০ ডলারের ২০%। অর্থাৎ আপনি যদি কোন এক বছরে ২,৫০০ ডলার বিনিয়োগ করেন তবে ৫০০ ডলার সিইএসজি অনুদান পাবেন এবং এই নিয়ম সবার জন্য প্রযোজ্য।   

অন্যদিকে আপনি কোন এক বছর যদি আরইএসপি-তে অবদান বা বিনিয়োগ না করেন অথবা সর্বাধিক সিইএসজি প্রাপ্তির জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ অবদান বা বিনিয়োগ করতে না পারেন, সে ক্ষেত্রে অব্যবহৃত সিইএসজি সেই নির্দিষ্ট বছরের জন্য কন্ট্রিবিউশন রুম তৈরি করে। অর্থাৎ আরইএসপি-তে আপনার অব্যবহৃত সিইএসজি স্বয়ংক্রিয়ভাবে পরবর্তী বছরগুলিতে ব্যবহারের জন্য কন্ট্রিবিউশন রুম তৈরি করে এবং বেনিফিসিয়ারী যত দিন পর্যন্ত সিইএসজি পাওয়ার যোগ্য তত দিন পর্যন্ত এই অব্যবহৃত সিইএসজি-র জের টানা ও ব্যবহারের সুযোগ পাবেন। আপনি পরবর্তীতে এই অব্যবহৃত সিইএসজি-র জেরের বিপরীতে অতিরিক্ত বিনিয়োগ বা অবদান করে অব্যবহৃত সিইএসজি-র অনুদান বা গ্রান্ট আদায় করতে পারেন। তবে বিনিয়োগ বা কন্ট্রিবিউশন রুম যাহাই থাক না কেন, আপনি সরকারের কাছ থেকে কোন একটি নিদ্দির্ষ্ট বছরে ১,০০০ ডলারের অতিরিক্ত সিইএসজি অনুদান পাবেন না। অর্থাৎ আপনি কোন এক বছর নির্ধারিত পরিমাণ (৫,০০০ ডলার) বিনিয়োগ বা অবদান করে সংশ্লিষ্ট বছরের জন্য সর্বোচ্চ ৫০০ ডলার এবং পূর্ববর্তী অব্যবহৃত সিইএজির জন্য সর্বোচ্চ ৫০০ ডলার মোট ১,০০০ ডলারের গ্রান্ট আদায় করতে পারবেন। তবে, অব্যবহৃত সিইএসজি-র জের এবং কন্ট্রিবিউশন রুম যাহাই হোক না কেন, সন্তানের ১৭ বছর বয়সের পর কোন প্রকার সিইএসজি অনুদান প্রদান করা হয় না। 

কানাডা লার্নিং বন্ড (সিএলবি) ঃ- কানাডা লার্নিং বন্ড আইএসপি-তে অতিরিক্ত কিছু অনুদান প্রদান করে। মুলতঃ ন্যাশনাল চাইল্ড বেনিফিট সাপ্লিমেন্ট প্রাপ্ত নিম্ন আয়ের পরিবার সিএলবি অনুদান পায়। সিএলবি-এর আওতায় সংশ্লিষ্ট পরিবার তাদের সন্তানদের জন্য আরইএসপি এ্যাকাউন্ট খোলার বছর ৫০০ ডলারের সিএলবি অনুদান পান এবং সন্তানের ১৫ বছর বয়স পর্যন্ত প্রতি বছর ১০০ ডলার করে লাইফ-টাইম লিমিট সর্বোচ্চ ২,০০০ ডলারের সিএলবি অনুদান পান। উপরন্তু আরইএসপি এ্যাকাউন্ট খোলার সময় এ্যাকাউন্ট খোলার খরচ বহনের জন্য অতিরিক্ত ২৫ ডলার অনুদান পান। সিএলবি’র সবচাইতে ভাল দিক হল নিম্ন আয়ের পরিবার আরইএসপি-তে বিনিয়োগ বা অবদান না করলেও সিএলবি অনুদান পেতে থাকবে এবং এই অনুদান সংশ্লিষ্ট পরিবারের প্রাপ্তব্য অন্য কোন ভাতা বা অনুদানকে প্রভাবিত করে না।     

আরইএসপি’র জন্য ৩টি টিপস্ঃ-                

      ১) সন্তান জন্মের পরেই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আরইএসপি শুরু করুন এবং যত বেশী সম্ভব অবদান বা বিনিয়োগ করুন। কারন, আপনি যত বেশী অবদান রাখবেন তত বেশি অনুদান পাবেন। সর্বপরি, আপনি আরইএসপি-তে যে অর্থ বিনিয়োগ করবেন এবং সরকার যে সকল অনুদান প্রদান করবে তা আপনার সন্তানের পোস্ট-সেকেন্ডারি শিক্ষার অর্থের প্রয়োজন না হওয়া পর্যন্ত ক্রমান্বয়ে করমুক্ত বৃদ্ধি পেতে থাকবে। 

     ২) সর্বাধিক সিইএসজি অনুদান গ্রহণে সচেষ্ট থাকুন এবং সর্বাধিক অনুদান আদায়ের জন্য আরইএসপি-তে প্রতি বছর কমপক্ষে ২,৫০০ ডলার অবদান বা বিনিয়োগ করুন। এছাড়া আপনার যদি কোন কন্ট্রিবিউশন রুম বা অব্যবহৃত সিইএসজি থাকে তবে যথাসম্ভব তা ব্যবহার করুন। 

      ৩) আপরার সন্তান পোষ্ট-সেকেন্ডারি শিক্ষা শুরুর আগে আরইএসপি হতে কখনই আপনার বিনিয়োগ বা অবদান উত্তোলন করবেন না। কেননা আরইএসপি হতে আপনার বিনিয়োগ বা অবদানের কোন আংশ উত্তোলন করলে আনুপাতিক হারে ফেডারেল সরকারের সিইএসজি অনুদান ফেরৎ প্রদান করতে হয়। তাছাড়া বিধি অনুযায়ী সরকারের সিইএসজি’র অনুদান পরবির্তী দুই বছরের জন্য স্থগিত হতে পারে। 

   পুনশ্চঃ সন্তানের পোস্ট-সেকেন্ডারি শিক্ষাখরচ মেটানোর জন্য আরইএসপি একটি আকর্ষণীয় সঞ্চয়। এতে আছে ফেডারেল সরকারের সিইএসজি এবং সিএলবি অনুদান, এছড়াও আছে ক্রমপুঞ্জীভূত মুনাফাসহ সকল অর্থের করমুক্ত বৃদ্ধি। তাই আপনার সন্তানকে  যদি উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করতে এবং শিক্ষাঋণের বোঝা থেকে মুক্ত রাখতে চান, তবে আজই আরইএসপি-তে বিনিয়োগ করুন, কেননা একটি আরইএসপি-ই আপনার সন্তানের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় আর্থিক সহায়তা করবে।

Muhammed M. Khan 
Financial Advisor
E-mail: muhammed.khan@agc.ia.ca
Phone: +1-613-290-8343