অটোয়া, শনিবার ১৭ আগস্ট, ২০১৯
অটোয়ায় ‘পিইএসিই (পিস)’ ও ‘বাংলা ক্যারাভান’ আয়োজিত অনুষ্ঠানে ডলি বেগমের উপস্থিতি নিশ্চিত

আশ্রম সংবাদঃ অটোয়া সিটি হলে আগামী ১৬ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ শনিবার বেলা ২-০০ ঘটিকায় স্থানীয় দু’টি সংগঠন ‘প্রো-এক্টিভ এডুকেশন ফর অল চিলড্রেন’স এনরিচমেন্ট (পিস)’ ও ‘বাংলা ক্যারাভান’ যৌথভাবে ‘আদিবাসী বছর ২০১৯’ এবং ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’-কে উৎসর্গকৃত একটি বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। বেলা ২-০০ ঘটিকা থেকে সন্ধ্যা ৬-০০ ঘটিকা পর্যন্ত প্রায় ৪ ঘন্টার এই অনুষ্ঠানে, মাতৃভাষার মাধ্যমে কানাডার বহুজাতিক বৈচিত্রময় সংস্কৃতির সমৃদ্ধির নিশ্চয়তা এবং সম্প্রতি কানাডা সিনেটে ‘২১শে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’-কে কেন্দ্র করে উত্থাপিত বিল এস-২৪৭ এর তাৎপর্য ও প্রয়োজনীয়তার প্রতি লক্ষ্য রেখে অনুষ্ঠানটিকে সাজানো হয়েছে। আয়োজকদের সাথে আলাপচারিতায় জানা যায় যে, বিশ্বের বিভিন্ন ভাষা ও জাতিগোষ্ঠীর প্রতি সম্মান জানিয়ে অটোয়ার বিভিন্ন ভাষাভাষির ছেলেমেয়েদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, চিত্রাংকন, বিভিন্ন ভাষার পুস্তক প্রদর্শন, ভাষাবৃক্ষের প্রদর্শন, এবং বিশিষ্ট ব্যক্তিদের অংশগ্রহণে প্যানেল ডিসকাশন বা বৈঠকি আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে। আলোচনায় অংশ নিবেন, অটোয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশিষ্ট অধ্যাপক, ভাষাবিদ ও অর্ডার অব কানাডা মেডেলিস্ট মিস শানা পপল্যাক, আবরার হাই স্কুলের প্রিন্সিপ্যাল ড. আলী এবং আন্তর্জাতিক ভাষা শিক্ষা এ্যাসোসিয়েশনের ডিরেক্টর মিঃ ইয়ানিউ। প্যানেল ডিসকাশনটি পরিচালনা করবেন, অটোয়া সিবিসি নিউজের কো-হোস্ট মিস্টার অ্যাড্রিয়ান হেয়ারউড। এছাড়াও অনুষ্ঠানে আলোচক হিসাবে উপস্থিত থাকবেন, বাংলাদেশ সরকারের রাষ্ট্রদূত জনাব মিজানুর রহমান, ফেডারেল সংসদ সদস্য মিঃ চন্দ্রা আরিয়া, ফেডারেল সংসদ সদস্য মিঃ এন্ড্রো লিজলি, মেয়র মিঃ জিম ওয়াটসন এবং কানাডা প্রবাসী বাংলাদেশিদের গর্ব, অন্টারিও প্রাদেশিক সংসদের সদস্য মিস ডলি বেগম সহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ।          

উল্লেখ্য যে, বাংলা ক্যারাভান ও পিস যৌথভাবে গত কয়েক বছর থেকে কানাডার জাতীয় পর্যায়ে বাংলা ভাষাসহ বিশ্বের সকল ভাষার সংরক্ষণ এবং প্রসারে কাজ করে যাচ্ছে। তাদের নিরলস প্রচেষ্টার কারনে অটোয়া সিটি ২১শে ফেব্রুয়ারিকে ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’ স্বীকৃতি প্রদান করে। এছাড়া সংগঠন দুটো কানাডা সিনেটে উত্থাপিত, বহুল আলোচিত বিল এস- ২৪৭ নিয়েও কাজ করছে।

অনুষ্ঠানটির সর্বাঙ্গীন সাফল্য কামনা করে বলা যায়- “Never doubt that a small group of thoughtful, committed citizens can change the world; indeed, it’s the only thing that ever has.”

অটোয়া, কানাডা।  
ashram@live.ca