অটোয়া, শনিবার ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯
অটোয়া আওয়ামী লীগ শাখার মোমবাতি প্রজ্বলন কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করি -কবির চৌধুরী

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অটোয়া শাখা আগামী ১৫ই আগস্ট, ২০১৯ রোজ বৃহস্পতিবার রাত আট ঘটিকার সময় অটোয়ায় অবস্থিত কানাডা জাতীয় সংসদ ভবনের সামনে, বাংলাদেশের স্থপতি জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মোমবাতি জ্বালিয়ে ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট রাতে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। বর্তমান সময়ের যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম ফেইসবুকে আবু সাইফুদ্দিনের দেওয়া স্ট্যাটাস, পোস্টার এর মাধ্যমে জানা যায় যে, কানাডা আওয়ামী লীগের সহযোগিতায়, অটোয়া আওয়ামী লীগ বঙ্গবন্ধুর ৪৪তম শাহাদৎ বার্ষিকী উপলক্ষে ১৫ই আগস্ট রাত আট ঘটিকার সময় অটোয়া পার্লামেন্ট হীলে একটি বিক্ষোভ সমাবেশ ও মোমবাতি প্রজ্বলন করবে। আওয়ামী লীগের এই উদ্যোগ প্রশংসনীয়, আসুন দলমত নির্বিশেষে আমরা সবাই, সব বাংলাদেশি, শোক দিবসের এই আয়োজনে অংশগ্রহণ করি এবং মোমবাতি জ্বালিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করি এবং কানাডায় রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থী বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনী নূর চৌধুরীকে বাংলাদেশ সরকারের কাছে হস্তান্তরের জোর দাবী তুলি। কারণ, বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনী নূর চৌধুরী বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আদালাতের রায়ের ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত হলেও এদেশের  আইনী কাঠামোর সুবিধা নিয়ে অবাধে বিচরণ করছে, যা আমাদের জন্য; কানাডিয়ান বাংলাদেশিদের জন্য অতি মর্মপীড়াদায়ক।

 উল্লেখ্য যে, ১৫ আগস্ট ১৯৭৫, স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরের নিজ বাসায় সেনাবাহিনীর কতিপয় বিপথগামী সেনাসদস্যের হাতে সপরিবারে নিহত হন ৷ সেদিন তিনি ছাড়াও ঘাতকের বুলেটে নিহত হন বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব ৷ এছাড়াও তাদের পরিবারের সদস্য ও আত্মীয়স্বজনসহ নিহত হন আরো ২৬ জন ৷

১৫ আগস্ট নিহত হন মুজিব পরিবারের সদস্যবৃন্দ: ছেলে শেখ কামাল, শেখ জামাল ও শিশু পুত্র শেখ রাসেল; পুত্রবধু সুলতানা কামাল ও রোজী কামাল; ভাই শেখ আবু নাসের, ভগ্নিপতি আব্দুর রব সেরনিয়াবাত, ভাগনে শেখ ফজলুল হক মণি ও তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী বেগম আরজু মণি ৷ বঙ্গবন্ধুর জীবন বাঁচাতে ছুটে আসেন কর্নেল জামিলউদ্দীন, তিনিও তখন নিহত হন ৷ দেশের বাইরে থাকায় বেঁচে যান জননেত্রী শেখ হাসিনা ও তার ছোটবোন শেখ রেহানা ৷ প্রতি বছর ১৫ আগস্ট জাতি গভীর শোক ও শ্রদ্ধায় স্মরণ করে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের সকল সদস্যদের, পালিত হয় জাতীয় শোক দিবস।

কবির চৌধুরী
১৩ আগস্ট, ২০১৯
অটোয়া, কানাডা।