অটোয়া, শনিবার ২১ মে, ২০২২
কমল কুজুর-র দু’টি কবিতা


(নজরুল স্মরণে কবিতা)
বসন্তের আগে এস ফিরে 
মার একটা আশ্রয় প্রয়োজন
আমাদের একটা আশ্রয় প্রয়োজন।
সন্ধ্যা নেমে এলেই পাখিরা যেমন ফিরে যায় নীড়ে, ঠিক তেমন।

অনাহুতের মতোই ছুটে ছুটে আসা সমুদ্র সফেন
ডুবিয়ে দেয় আমাদের ঘর বাড়ি অন্তর
আর গ্লাসের শেষ জলবিন্দুটুকুও নেয় কেড়্বে।

চারপাশের যত অনিয়ন্ত্রিত ধারণার বসবাস
সব যেন গলা টিপে ধরে
মৃত্যু শয্যায় কবিতারা নেয় শ্বাস।

নক্ষত্রমন্ডলের আলো আসুক নেমে
বসন্তে পাতাগুলো ঝরে পড়ার আগেই
বেঁচে উঠুক কবিতার স্রোত।

আমাদের একজন নজরুল দরকার
এই ক্ষয়ে যাওয়া পৃথিবীটার
একজন বিদ্রোহী নজরুল খুবই দরকার। 


নিসর্গ বার্তা
মানব পল্লীগুলো ক্রমেই শূন্য হয়ে আসে
বিবর্ণ রাত্রি বসে গোনে দিন 
কবে হবে শেষ আঁধারের ক্ষণ
আসবে না কি ফিরে সেই মিঠে আলাপন?
নিশুতি রাতের
- স্নিগ্ধ বুনন।

শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে চলেছে গঞ্জনা
গহীন অরণ্য মরুভূমি হয়ে তাই মরে কেঁদে - অমাবস্যার কোলে;
জঞ্জালের ভারে শুকিয়ে হয় কাঠ
কাক চক্ষুর সমুদ্র নিরন্তর।

অবশেষে
নক্ষত্রমন্ডলের আলোয় আলোকিত প্রকৃতির সংসার
অদম্য যোদ্ধা এক করে সাবাড় সমস্ত দূষণ
ঈশ্বরের শুভ দৃষ্টিতে পায় ফিরে
 - নব জীবন। 

কমল কুজুর
দিনাজপুর, বাংলাদেশ