অটোয়া, শনিবার ২১ মে, ২০২২
রাগ, অতলান্তিক অর্ঘ্য – সুলতান আহমেদ

 কবে বলো প্রাত্যহিকে তোমার শরীর মনে ঘরে 
 আমার প্রানের বাষ্প নীড় পাবে তোমার আকাশে 
                      -বিষ্ণু দে 

প্রশ্নোত্তরে তোমার জবাব 
বিমূর্ত হাসির শ্রাবন, 
নয়তো 
কোনও বিস্মৃত স্বপ্নের প্লাবন- 
        অসামান্য সৌরভে বিভোর নিটোল কাব্য। 

তোমার  চোখ, কি তার ভাষা? 
বুঝবো না- 
ব্যাখ্যাতীত রৌপ্য  মায়াতে মগ্ন, 
কালের প্রপাত গড়ায় নিস্পন্দ- 
        ভালবাসার প্রস্রবনে অগ্নিস্নান শ্রান্তিহীন। 

একবার জানলায় দেখি, 
উন্মাদ রোদের কাঁটায় 
জ্বলছে 
তোমার মুখ, অতলান্তিক প্রভায়- 
        সামুদ্রিক সম্মোহনে কাটে নিরুদ্ধ প্রহর। 

কি ভাবো? 
অসম্ভবের সখ্য বা শুক্লা তিথির পক্ষ? 
আকাশ-কুসুম? 
জানবো না- 
কোন অনিকেত সখ্য বা দুঃখ, 
গড়ে তোমার সৌধ- 
        আদরের সঙ্গোপন সঞ্চয়ে রেখেছি সেই অর্ঘ্য। 

একদিন প্রহরান্তে শুনবো 
সব থেমেছে কান্নায়, 
হাসি, সখ্য আর প্রেম 
গোধূলির বন্যায়। 
        আবেশে জড়ায় সন্ধ্যার ভিজে আকাশ। 

সুলতান আহমেদ
অটোয়া, কানাডা