অটোয়া, সোমবার ২৫ জানুয়ারি, ২০২১
আমার কবিতার রহস্য - গোলাম কবির

মি কী আসলে কোনো কবিতা
লিখি! নিজেকেই যখন প্রশ্ন করি,
উত্তর আসে - না, এগুলো কোনো
কবিতাই নয়! এগুলো হচ্ছে আসলে
আমার পৃথিবী জোড়া বিশাল ক্যানভাসে
অক্ষরের এলোমেলো
আঁচড়ে আমার আনন্দ ও বেদনার
নীল উপাখ্যান, আমার স্বাধীন
মতামত প্রকাশের সুনীল কক্ষপথে
ঘুরে ঘুরে তোমাদের কাছে পৌঁছে
দেয়া, কখনো আমার বুকের ভিতরে
জমাট বাঁধা কষ্ট ও গভীর প্রেমে পড়ে
বিরহের কষ্টের মেঘ গুলো পৃথিবীর বুকে 
বৃষ্টির  আশায় ছড়িয়ে দেয়া
যেনো একসময় সবুজ ফসলের মাঠে
পৃথিবী হেসে ওঠে আনন্দে। 
কেউ কেউ হয়তো বলতে পারেন
আমার কবিতা গুলো কোনো
কবিতাই নয়!  কোনো কাব্যিকতা
নেই, চোখ ধাঁধানো অদ্ভুত সুন্দর
কোনো উপমা, চিত্রকল্প কিংবা
নিদেনপক্ষে ভাষাটাও তো তেমনই
কাব্যিক না হয়ে একদম সাদামাটা
চোখের সামনে দেখা কথা কিংবা
বিষয়গুলোই উঠে আসে কবিতায়।
আমিও মানছি তা শতবার! 
আসলে আমার কাছে মনে হয়
বর্তমান জটিল জীবনের ঘুর্ণিপাকে
পড়ে জীবন হয়ে গেছে একদমই
একসময় রামপুরা টু সদরঘাট যাওয়া
মুড়ির টিনের বাসের মতো, 
তাই এতো জটিল করে আমি দেখি না
কিছু, যা কিছু দেখি তা সব একদম ফকফকা 
সকালের  মতো স্নিগ্ধ সুন্দর
এবং সরল, কখনো আবার প্রগাঢ়
অন্ধকারের বিষয় গুলো দেখি তাও
পুরানো ঢাকার চেনা অলিগলির
মতোই সহজ করে, রহস্যটা এটাই!

গোলাম কবির
তাজমহল রোড, 
মোহাম্মদপুর, ঢাকা