অটোয়া, সোমবার ২৩ মে, ২০২২
বিপন্ন জীবন - দেওয়ান সেলিম চৌধুরী

যৌবনে কারাগারে কাটিয়েছিনু বেশ কটা দিন
বিষন্নতায়,একা একা স্বজন বিহীন।
চারিদিকে ভিন্নরুপি মানুষের মেলা,
জেনেছিনু বিচিত্র কাহিনী আর ভাগ্যের খেলা
এ ভাবেই কেটে যেত, হাতে গোনা বেলা। 
একদিন সুযোগ এলো দেখা করিবার
ফাঁসির আসামি দুজন, সময় নাহি আর। 
কখন যে খুলিবে দ্বার,  জল্লাদ আসি
নিয়ে যাবে চোখ বেধে নির্ঘাত ফাসিঁ
করেছিনু শত প্রশ্ন অবুঝের মত
মেলেনি উত্তর তার,প্রশ্ন ছিল যত।
সময় ছিলনা হাতে মিছে ব্যয় করিবার 
বির বির করিছে দু'ঠোট,শত কোটি বার।
চোখে মুখে ছিল তাদের ভীতির ছায়া
যেন জীবন, জীবন নয় মৃত্যুর কায়া।
এখন, জীবন সায়াহ্ণে দেখি আরো কিছু মুখ
ভয়ে ভয়ে একাকার জীবন বিমুখ।
অজানা ভয় এসে কেড়ে নিলো জীবনের সুখ।
কখন যে আসিবে দূত,জল্লাদের মত
নিয়ে যাবে অন্ধকারে, শাস্তি অগণিত।
চারিদিকে ভীতির মহড়া চলিতেছে অবিরত।
মানুষকে দেয় না বাঁচিতে মানুষের মত। 
জীবন হয়ে উঠে বোঝা,মৃত্যুর চেয়ে
কল্পনায় বীভৎস ছবি,ছুটে আসে ধেয়ে। 
বিশ্বাসের কঠিন আঘাতে বিপন্ন এ জীবন 
মুছে দেয় বারে বারে, জীবনের সব আয়োজন।

দেওয়ান সেলিম চৌধুরী। অটোয়া