অটোয়া, মঙ্গলবার ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯
কানাডার McGill বিশ্ববিদ্যালয়ে PhD / Post Doctorate কোর্সে বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ সংক্রান্ত বিশেষ সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর - সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

বাংলাদেশ হাই কমিশন, অটোয়ার সার্বিক অংশগ্রহণে ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ তারিখ কানাডার স্বনামধন্য McGill বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে বাংলাদেশের Bangamata National Cellular and Molecular Research Center (BNCRC)/Bangladesh Medical Research Council (BMRC)- এর “Bangladesh McGill University Scholarships Programme” শীর্ষক এক সমঝোতা স্মারক (MOU) স্বাক্ষরিত হয়। McGill বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে প্রথমবারের মতো স্বাক্ষরিত এই MOU-র অধীনে বাংলাদেশ সরকার এবং McGill বিশ্ববিদ্যালয়ের  যৌথ আর্থিক  সহায়তায় বাংলাদেশ থেকে প্রায় ৪০ জন উচ্চ শিক্ষার্থী McGill বিশ্ববিদ্যালয়ে PhD বা  Post Doctorate পর্যায়ে শিক্ষা গ্রহণ করতে আসবেন এবং শিক্ষা শেষে তারা বাংলাদেশের BNCRC -তে গবেষণা কাজে নিয়োজিত হবেন। McGill বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্ট  এবং ভাইস চ্যান্সেলর Professor Suzanne Fortier এবং BNCRC -এর প্রকল্প পরিচালক ডা. মাহমুদ- উজ- জাহান সমঝোতা স্মারকটি স্বাক্ষর করেন।  McGill বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যাথলজি বিভাগের Visiting Professor ড. আবু সাদাত মোহাম্মাদ নোমান MOU টি স্বাক্ষরে বিশেষ সহযোগিতা প্রদান করেন।  অনুষ্ঠানের শুরুতে তিনি বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং অতিথিবৃন্দের সংক্ষিপ্ত পরিচয় তুলে ধরেন। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশের মাননীয় সংসদ সদস্য এবং Inter-Parliamentary Union – এর সভাপতি, ডা. হাবিব ই মিল্লাত বাংলাদেশের স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়নে  মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তাঁর স্বীকৃতির কথা উল্লেখ করেন। তিনি সরকারের  কর্মসূচি   এবং SDG-র লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সফলতার জন্য স্বাস্থ্যখাতে গবেষণার গুরুত্ব তুলে ধরেন এবং এ ক্ষেত্রে সহায়তার জন্য McGill বিশ্ববিদ্যালয়কে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।  BNCRC-র প্রকল্প পরিচালক ডা. মাহমুদ- উজ- জাহান তাঁর বক্তব্যে বাংলাদেশ সরকারের ECNEC কর্তৃক Bangamata National Cellular and Molecular Research Center প্রকল্পের  অনুমোদন এবং প্রকল্পের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে এ ধরনের অত্যাধুনিক প্রকল্প পরিচালনা ও তা বাস্তবায়নে উচ্চ শিক্ষিত দক্ষ জনবলের প্রয়োজনীয়তার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। দক্ষ লোকবল তৈরিতে সহযোগিতার জন্য McGill বিশ্ববিদ্যালয়কে ধন্যবাদ জানান।



বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কানাডায় নিযুক্ত বাংলাদেশের মান্যবর হাই কমিশনার জনাব মিজানুর রহমান বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করে যুদ্ধ বিধ্বস্ত বাংলাদেশের পুনঃ নির্মাণে বিশেষ করে স্বাস্থ্যখাত উন্নয়নের উদ্যোগের কথা বিবৃত করেন এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের সময়কালে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন বিশেষত স্বাস্থ্যখাতে উন্নয়নের কথা বর্ণনা করেন। তিনি কানাডা - বাংলাদেশের বিকাশমান দ্বিপাক্ষিক সুসম্পর্কের বিভিন্ন ক্ষেত্রের উপর আলোকপাত করেন। বাংলাদেশের স্বাস্থ্যখাতের অগ্রগতির জন্য মানসম্পন্ন গবেষণার  প্রয়োজনীয়তার কথা উল্লেখ করে তিনি এ ক্ষেত্রে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেয়ার জন্য McGill বিশ্ববিদ্যালয়কে ধন্যবাদ জানান। এ ধরনের সময়োপযোগী উদ্যোগ আরও বিস্তৃত ও দীর্ঘস্থায়ী হওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেন। সেক্ষেত্রে হাই কমিশনের সার্বিক সহযোগিতা অব্যাহত রাখার আশ্বাস প্রদান করেন।  McGill বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্ট  ও ভাইস চ্যান্সেলর Professor Suzanne Fortier তাঁর বক্তব্যে McGill বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার উচ্চমান এবং এর ঐতিহ্য বর্ণনা করে প্রতিষ্ঠানের আন্তর্জাতিক অঙ্গনে জ্ঞান ও গবেষণার ক্ষেত্র ও মান বৃদ্ধির অঙ্গীকার করেন। McGill বিশ্ববিদ্যালয়ের এই  প্রচেষ্টারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের BNCRC/ BMRC- এর সাথে McGill বিশ্ববিদ্যালয়ের সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের প্রতিফলন হিসেবে তিনি তুলে ধরেন এবং এই উদ্যোগের সফলতা কামনা করেন। কানাডার  বাংলাদেশ হাই কমিশনের মিনিস্টার মিয়া মোঃ মাইনুল কবির ও কাউন্সেলর (বাণিজ্যিক) মোঃ শাকিল মাহামুদ এবং McGill বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডীন, ভাইস ডীনগণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন । এ ছাড়াও অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের অর্জিত উন্নয়নের উপর নির্মিত একটি তথ্যচিত্র হাই কমিশনের তরফ থেকে প্রদর্শিত হয়। 



পরবর্তীতে McGill বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে বাংলাদেশ থেকে আগত প্রতিনিধিদল এবং হাই কমিশনার ও হাই কমিশনের কর্মকর্তাগণের একটি যৌথ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে অন্যান্য বিষয়ের পাশাপাশি মান্যবর হাই কমিশনার McGill বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি স্থায়ী ‘বঙ্গবন্ধু চেয়ার’ / ‘বঙ্গবন্ধু বৃত্তি’ প্রচলনের প্রস্তাব করেন। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এ প্রস্তাবে আগ্রহ প্রকাশ করে এ সংক্রান্ত প্রক্রিয়া জানানোর অঙ্গীকার করেন। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী পালনের কর্মসূচির  অংশ হিসেবে মান্যবর হাই কমিশনার ২০২০ সালে বঙ্গবন্ধুর জীবন, কর্ম, আদর্শ ইত্যাদি বিষয়ে McGill বিশ্ববিদ্যালয়ে যৌথভাবে একটি সেমিনার আয়োজনের প্রস্তাব দেন এবং বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এ অনুষ্ঠান আয়োজনে আগ্রহ প্রকাশ করেন। হাই কমিশনের তরফ থেকে স্বাস্থ্যখাতে গবেষণায় McGill বিশ্ববিদ্যালয়ের সহায়তার পাশাপাশি বাংলাদেশের নার্সিং শিক্ষার মান উন্নয়নে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহায়তা কামনা করা হয়। সভায় বাংলাদেশের সাথে  বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌথ কর্মকাণ্ড আরও বেগবান করার লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি কেন্দ্র স্থাপনের বিষয়ে আলোচনায় হয়। আলোচনায় মান্যবর  হাই কমিশনার কেন্দ্রটিকে বঙ্গবন্ধুর নামে নামকরণের প্রস্তাব করেন যা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সক্রিয় বিবেচনার আশ্বাস প্রদান করেন। পরবর্তীতে আগত অতিথিদের সম্মানে McGill বিশ্ববিদ্যালয় একটি মধ্যাহ্ন ভোজের আয়োজন করে। 

প্রেরক
মিয়া মোঃ মাইনুল কবির
মিনিস্টার, বাংলাদেশ হাই কমিশন
অটোয়া, কানাডা।
৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯