অটোয়া, বৃহস্পতিবার ১৪ নভেম্বর, ২০১৯
আবরারের এপিটাফ -ফরিদ তালুকদার

আঁধারের বুকে  শুয়ে আছে আরও আঁধার 
দূর নক্ষত্রের চোখে বেদনার ফোঁটা  
হয়তো ছিলো
 দেখেনি কেউ

বৃষ্টি নেই 
শ্রাবণের ঝড় নেই
তবু  কেন এতো হুতাশন কাঁপে পূবের বাঁশের ঝাড়ে? 
মৃত্তিকাকে বুকে জড়িয়ে  চিৎকার করে এক কাপালিক মায়া
গুমরে উঠে নীরবতা হঠাৎ 
হেমলকের পেয়ালায় চুমুক দিয়ে  পড়ে থাকা রাত 
দেখে এই ভোর তাই এতো নীল
এতো সূর্য নয় নীলাভ গোলক

একি মানুষের পৃথিবী? 
সময়ের ভুলে এসেছিলো যে এক মানুষ 
রেখে গেলো এই প্রশ্ন হায়েনার দেশে

আঘাতের নির্মমতা নিতে পারেনি যে শরীর
যন্ত্রণা আর ক্ষোভের পাহাড় জমা শুষ্ক ঠোঁটের কোনে
একফোঁটা জলের আকুতি  নিয়ে  চলে গেলো আজ সে 
পৃথিবী ছেড়ে

মৃত্তিকার তপ্ত পাথরে পিঠ ঠেকিয়ে
আকাশের নীল গম্বুজটাকে বুকে নিয়ে 
পড়ে থেকেছি বহুদিন 
কিন্তু কখনো মনে হয়নি এমনি 
এতোটা ভারী
যতোখানি চেপে ধরেছে তোর এপিটাফ 
আবরার..

তুই আবারও জানিয়ে গেলি
দানবতা ছাড়া আর কিছুই শিখিনি আমরা 
তাই এ কলম থেমে যাক এখানেই…!!

ফরিদ তালুকদার । টরেন্টো