অটোয়া, শুক্রবার ২০ মে, ২০২২
আত্মপক্ষ সমর্থন – কবির চৌধুরী

     ত কয়েকদিন থেকে পরিচিত বন্ধুবান্ধবদের অনেকেই খুব মিস্টিভাষায় অভিযোগ করছেন যে, ‘আশ্রম’-এ প্রকাশিত অনেক কবিতা-ই মানউত্তীর্ণ হচ্ছে না। তাদের মতামত দেয়ার অধিকার অবশ্যই আছে। বোদ্ধা পাঠকবন্ধুদের মতামতের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে, অত্যন্ত বিনয়ের সাথে বলতে চাই, ‘স্বকীয় সংস্কৃতি চর্চা আর নতুন লেখকদের অগ্রাধিকার’ এই স্লোগান ধারণ করেই ২০০৯ সালে ‘আশ্রম’-এর যাত্রা শুরু হয় এবং এখন পর্যন্ত আমরা সেই “স্লোগান” ধারণ করেই চলছি এবং ভবিষ্যতেও চলবো। কারণ- নতুনকে নিয়ে আমরা চলতে চাই। আমরা বিশ্বাস করি নতুনরাই একদিন পরিপক্ষ হবে - পরিণত হবে - পুরাতন হবে। নতুন আর পুরাতনের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় ‘আশ্রম’ একদিন পরিপূর্ণ হয়ে উঠবে। 
     আপনারা যারা আমার এই লেখাটি পড়ছেন, তারা অনেকেই হয়ত ‘আশ্রম’ নামে এই অনলাইন সাহিত্য পত্রিকাকে নতুন আবিস্কার করেছেন। আপনারা জেনে খুশি হবেন যে, কানাডার অটোয়ায় ২০০৯ সালে ‘আশ্রম’ মাসিক বাংলা ম্যাগাজিন হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে, যা ২০১৭ সাল পর্যন্ত নিয়মিত মুদ্রিতভাবে প্রকাশিত হয়। বাংলাদেশ থেকে হাজার হাজার মাইল দূরে বসে সীমিত সুযোগসুবিধা নিয়ে কানাডার রাজধানী অটোয়া থেকে ‘আশ্রম’ প্রকাশের একমাত্র উদ্দেশ্য ছিল বাংলাভাষা বিশ্বায়নের যুগে অটোয়ায় বাংলা ভাষা ও সাহিত্য সংস্কৃতির চর্চা এবং প্রসারে সহযোগিতা করা। সর্বোপরি ক্রমবর্ধমান বাঙালি অধ্যুষিত শহর অটোয়ায় বাংলা ভাষার একটি পত্রিকার অভাব পূরণ করা। আমি আত্মবিশ্বাস নিয়ে বলতে পারি, গত কয়েক বছর হতে প্রবাসের শত বাধাবিপত্তি অতিক্রম করে ‘আশ্রম’ কানাডার রাজধানী অটোয়াতে বাংলা পত্রিকার অভাব পূরণ করে, বাংলা সাহিত্য-সংস্কৃতি প্রসারে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে। 
 ‘আশ্রম’ পত্রিকা প্রকাশের পাশাপাশি অটোয়ায় বিভিন্ন সামজিক-সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে চলছে, যার অন্যতম অটোয়ায় স্থানীয় শিল্পীদেরকে উৎসাহিত করার জন্য “আশ্রম একক সঙ্গীতসন্ধ্যা”-র প্রচলন। ২০১৩ সাল থেকে ‘আশ্রম’ প্রতি বছরই স্থানীয় শিল্পীকে নিয়ে ‘আশ্রম একক সঙ্গীতসন্ধ্যা’-র আয়োজন করে আসছে, যা শিল্পী এবং সঙ্গীতপ্রিয় শ্রোতাদের কাছে খুবই জনপ্রিয়। কিন্তু ২০১৭ সালের মধ্যভাগে ‘মাসিক আশ্রম’ প্রকাশ বন্ধ হয়ে যায়, যার অন্যতম কারন লেখা এবং বিজ্ঞাপন। অন্যকারণ ও বলা যায়- যা হল বর্তমানের অনলাইন মিডিয়ার প্রসার। তবে, মুদ্রণ সংখ্যার প্রকাশ বন্ধ হলেও ২০১৭ সালের শেষ দিক থেকে ‘আশ্রম’ অনলাইনে নিয়মিতভাবে প্রকাশ হচ্ছে এবং আশা করি তা অব্যাহত থাকবে। পাঠক ও লেখকদের সহযোগিতা ছাড়া এই প্রবাসে বসে স্বকীয় সাহিত্য-সংস্কৃতি চর্চা অসম্ভব। স্বকীয় সাহিত্য-সংস্কৃতি চর্চায় সাহায্য-সহযোগিতা করার জন্যে আমি ‘আশ্রম’-র নিয়মিত লেখক এবং পাঠকদের কাছে আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ। ভুলত্রুটি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখে নিয়মতভাবে ‘আশ্রম’ পড়ার এবং আশ্রমে লেখার অনুরোধ রইল। 

     লেখা পাঠাবার নিয়মাবলী  
     ১) গল্প বা প্রবন্ধ কমপক্ষে ১০০০ শব্দের হতে হবে;
     ২) কবিতা কমপক্ষে ১০০ শব্দের হতে হবে। কবিতা ছোট হলে কমপক্ষে ২ টি পাঠাতে হবে;
     ৩) কোন লেখা ছাপা না হলে কর্তৃপক্ষ লেখককে জানাতে বাধ্য নয়;
     ৪) লেখাগুলো নতুন হতে হবে। অন্য কোন পত্রিকা (হার্ড কপি বা অনলাইনে) প্রকাশিত হলে তা না পাঠাতে বিশেষভাবে অনুরোধ করা হল;
     ৫) লেখার সাথে লেখকের পরিচিতি, বর্তমান ঠিকানা, টেলিফোন নাম্বার এবং একটি ফটো (লেখার শিরোনামের সাথে দেবার জন্য) অবশ্যই পাঠাতে হবে;
     ৬) লেখাগুলো অবশ্যই সৃজনশীল এবং মননশীল হতে হবে;
     ৭) সাংস্কৃতিক সামাজিক সংগঠনের সংবাদ ব্যাতীত অন্য কোন সংবাদ বা প্রেস বিজ্ঞপ্তি গ্রহণ করা হবে না। সংবাদের সাথে অবশ্যই সংবাদ সম্পর্কিত কিছু ফটো সংযুক্ত করতে হব;
     ৮) লেখাগুলো অবশ্যই সম্পাদক বরাবর ashram@live.ca পাঠাতে হবে;
     ৯) ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করে এমন কোন লেখা গ্রহণযোগ্য হবে না; 
     ১০) লেখাগুলো অবশ্যই এম এস ওয়ার্ড ডকুমেন্টে পিডিএফ ফাইল সহ পাঠাতে হবে।

শুভেচ্ছান্তে,
কবির চৌধুরী
প্রকাশক, সম্পাদক
আশ্রম সাহিত্য ও সংস্কৃতি বিষয়ক পত্রিকা
অটোয়া, কানাডা।