অটোয়া, শুক্রবার ২০ মে, ২০২২
জবানবন্দি - বিশ্বজিৎ কর

নেক পথের বাঁকে নদীর ভাষা থাকে, 
লাল পলাশের ছন্দে গান থাকে! 
আলি আহমেদ হোসেনের সানাই-এর মূর্ছনায়, 
বীরেন ভদ্রের উদাত্ত চন্ডীপাঠে জীবনের কবিতা স্পন্দিত হয়! 
কত রামায়ণ-মহাভারতের দুপুরে আমিনা পুকুরে গুগলি খোঁজে, 
মায়ের চিতার তাপের শীতলতায় এখনও যন্ত্রণার ছবি দেখি! 
চিতার তাপে বাবার ডান হাত ধীরে ধীরে উঠতে থাকার ছন্দে সেই অমোঘ কথা-
"খোকা, আসি রে "!
মাতলা নদীর লঞ্চে মা একবার সহযাত্রী, আমার-
মা'কে জড়িয়েই ছিলাম সারাক্ষণ, ভয়ে! 
নিরাপত্তার সে কি মাদকতা! না, ভুলিনি! 
এখন কবিতাগুলো কাঁপে, নিরাপত্তাহীনতায়! 
কবি চেয়েছিলেন -
"ধুয়ো লাশ আমার লাল পানি দিয়ে! "
আমি যে এক না-কবি, 
রেখো লাশ আমার কবিতার ঝরাপাতায়! 

বিশ্বজিৎ কর। কলকাতা