অটোয়া, বুধবার ১৯ জুন, ২০২৪
আমার মুক্তিযুদ্ধ গ্রন্থ নিয়ে অন্তরঙ্গ পাঠ - আশ্রম সংবাদ

রবিবার ২০ আগস্ট এর রোদ ঝলমল সুন্দর বিকালে স্থানীয়  Overbrook Community Centre (33 Quill Street) এ কানাডার রাজধানী অটোয়ায় বসবাসরত বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহেদ বখত ময়নু’র  “আমার মুক্তিযুদ্ধ” বইয়ের উপর 'অন্তরঙ্গ পাঠ' অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অটোয়া, কানাডা থেকে প্রকাশিত বাংলা সাহিত্যের সৃজনশীল ওয়েবসাইট 'আশ্রমবিডিডটকম' আয়োজিত এই অন্তরঙ্গ পাঠে দীর্ঘ কোভিডকালের পর অটোয়ার সুধীজনদের উপস্থিতিতে এবং ‘আশ্রম’ সম্পাদক সুলতানা শিরীন সাজি'র উপস্থাপনায় মঞ্চে আসন গ্রহণ করেন, আশ্রমের প্রকাশক এবং অনুষ্ঠানের সভাপতি কবীর চৌধুরী, “আমার মুক্তিযুদ্ধ” বইয়ের লেখক শাহেদ বখত ময়নু, “আমার মুক্তিযুদ্ধ” বইয়ের সম্পাদক লেখক মহসীন বখত, মুক্তিযোদ্ধা সুলেমান আলী, মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা নুরুল হক, মুক্তিযোদ্ধা শিকদার মতিয়ার রহমান, চ্যানেল আইয়ের প্রাক্তন কর্মকর্তা মুক্তিযুদ্ধের কন্ঠ সৈনিক মহসিন রেজা, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ, মুক্তিযোদ্ধা বজলুস শহীদ, বাংলা একাডেমীর পুরস্কার প্রাপ্ত মুক্তিযুদ্ধ গবেষক তাজুল মোহাম্মদ, বাংলা একাডেমীর পুরস্কার প্রাপ্ত ছড়াকার লুৎফর রহমান রিটন, অভিনেত্রী আফরোজা বানু, এবং কবি দেওয়ান সেলিম চৌধুরী।  

সঞ্চালক কবি সুলতানা শিরীন সাজি’র গাওয়া ‘আগুনের পরশমনি ছোঁয়াও প্রানের’ গানটির মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়। সাজি বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে তার ব্যক্তিগত কিছু অনুভূতির কথা বলে একে একে অনুষ্ঠানের আমন্ত্রিত অতিথিদেরকে “গ্রন্থ”টি নিয়ে আলোচনা করতে আহবান করেন। ‘আমার মুক্তিযুদ্ধ’ গ্রন্থের সম্পাদক লেখক মহসীন বখতের স্বাগতিক বক্তব্যের পর আমন্ত্রিত অতিথিরা যথাক্রমে, ছড়াকার লুৎফর রহমান রিটন, মুক্তিযুদ্ধ গবেষক তাজুল মোহাম্মদসহ মুক্তিযোদ্ধা সুলেমান আলী, মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা নুরুল হক, মুক্তিযুদ্ধের কন্ঠ সৈনিক মহসিন রেজা, প্রমুখ তাঁদের বক্তব্য রাখেন।  “আমার মুক্তিযুদ্ধ”গ্রন্থটিকে নিয়ে শুধুমাত্র “অন্তরঙ্গ পাঠে”র কথা থাকলেও কোন কোন আলোচক মূল বিষয়ের বাইরে দীর্ঘ সময়ব্যাপী অনেক অপ্রাসঙ্গিক কথা বলার কারণে, উপস্থিত এবং আমন্ত্রিত অনেক অতিথি আলোচনায় অংশগ্রহণ করতে পারেননি। বিশেষ করে অনুষ্ঠানের মঞ্চে উপবিষ্ট অনেক বীর মুক্তিযোদ্ধা  “আমার মুক্তিযুদ্ধ” বইটি নিয়ে তাঁদের অনুভূতি আর তাঁদের কথা উপস্থিত সুধীজনদের সাথে শেয়ার করতে পারেননি। তবে অংশগ্রহণকারী সকল আলোচকই মুক্তিযোদ্ধাদের রণাঙ্গনের ইতিহাস লিখে রাখার অনুরোধ করেন, এবং মুক্তিযোদ্ধা শাহেদ বখত ময়নুকে “আমার মুক্তিযুদ্ধ” গ্রন্থটি প্রকাশ করার জন্য অভিনন্দন জানান এবং আশা প্রকাশ করেন, “আমার মুক্তিযুদ্ধ” গ্রন্থটি বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতাযুদ্ধের লিখিত ইতিহাসকে সমৃদ্ধ করবে।  

শাহেদ বখত ময়নু তাঁর বক্তব্যে অনুষ্ঠানে উপস্থিত সুধীজন, সাথী বীর মুক্তিযোদ্ধাদের এবং আমন্ত্রিত অতিথিসহ “আমার মুক্তিযুদ্ধ” গ্রন্থটি প্রকাশনার সাথে জড়িত সবার প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানান, বিশেষ করে বইয়ের অনুলেখক জাবেদ ভুঁইয়া, বইটি প্রকাশ উপলক্ষে বাংলাদেশে অবস্থানকালীন সময়ে তাহাঁর সর্বক্ষণের সাথী লেখক ও সাংস্কৃতিক কর্মী খছরু চৌধুরী, এবং সম্পাদক মহসীন বখতকে। তিনি বলেন, “জাবেদ ভূঁইয়া তিনটি মাস আমার সাথে থেকে বইটির অনুলিখন করেছে, খছরু চৌধুরী বিভিন্ন বিষয়ে সহযোগিতা করেছেন এবং শেষে অনেক ব্যস্ততার মাঝেও আমার ভাই মহসীন বখত, পান্ডুলিপিটি দেখে-পড়ে সম্পাদনা করে প্রকাশ করেছে, আমি তাদের কাছে কৃতজ্ঞ”।  এছাড়া অনুষ্ঠানে নিজের বক্তব্যের সাথে , “আমার মুক্তিযুদ্ধ” বই থেকে পাঠ করেন আফরোজা বানু, লেখক/কবি রুমা বসু এবং কবি নির্মলেনদু গুনের কবিতা পাঠ করেন ‘মুক্তিযুদ্ধের যুদ্ধ শিশু' গবেষক মুস্তফা চৌধুরী। অনুষ্ঠানের ছবি এবং ভিডিও তোলেন রিয়াজ জামান, গুলজাহান রুমী। এছাড়া সহযোগীতায় ছিল নতুন প্রজন্মের আদীব বখত, লিমা বখত, রাশীক মোহাম্মদ এবং বাসমাহ রহমান। 

পরিশেষে, সভাপতির বক্তব্যে কবির চৌধুরী অনুষ্ঠানে উপস্থিত সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, “আপনাদের উপস্থিতিতে ‘আশ্রম’ এর অনুষ্ঠানে প্রাণ পায়, আপনাদের সহযোগিতা নিয়ে অটোয়ার সাহিত্য, সাংস্কৃতিক অঙ্গনে আশ্রম আরো সুন্দরভাবে কাজ করতে চায়”। এছাড়া কবির চৌধুরী, মহসীন বখত এবং সুলতানা শিরীন সাজি তাদের কথায় বারবার করে সবাইকে “আশ্রম বিডিডটকম”এ লিখতে বলেন এবং পড়তে বলেন। অনুষ্ঠানের সভাপতির বক্তব্যের পর, ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা, ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্ট কালোরাতে শাহাদত বরণকারী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ সকল শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন এবং বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে ‘অন্তরঙ্গ পাঠ’ এর সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

নিজস্ব প্রতিবেদক
আশ্রমবিডিডটকম
অটোয়া, কানাডা