অটোয়া, রবিবার ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
তার ধ্রুবতারা - শাহ বাহাউদ্দিন শিশির

 

 ত শতবার ভেবেছি, বলব তোমাকে

জানি না কি যেন অজানা শঙ্কায় থেকেছি নির্বাক।
অসহায় আমি দেখেছি কতনা দর্শনে
অগনিত প্রচেষ্টায়ও মেলেনি উত্তর কোথাও,
ভীত আমি রয়েছি শুধুই দাঁড়িয়ে এ আঁধার শ্মশানে।

একাকীত্ব যেন আজ নিত্যদিনের সাথী – কোন এক দুরারোগ্য ব্যাধী,
প্রিয় আমার, ক্ষমাই না হয় করলে আজ, এই অসংলগ্ন আবেগের অস্থিরতায়।
বারে বারে খুঁজেছি তোমায় এই জলে, স্থলে আর অন্তরীক্ষে,
মানসী আমার, অস্তিত্বে আমার আজ শুধু তুমি – আমার সবকিছু।

সমস্ত সুখ, দুঃখ, গর্ব, জীবনকাব্য – ঠিক ভালবাসার ক্ষুধা,
সাগরের উদ্যাম তরঙ্গ আর ঝড়ের বিপদ সংকেত – দমকা হাওয়া,
আজও তুমি আমার গভীর রাতের জোছনা।

তাকে না হয় আজ করলেই ক্ষমা – অবাধ ভালবাসে যে সে,
তার আশা-প্রেম আজ তোমাকে ঘিরে, ক্ষমা করো তারে প্রেয়সী আমার,
ভুল যেন বুঝনা তার শিশুসুলভ চলায় – একদিন ঠিকই বুঝে নেবে সে,
ভয় পেয়ো না, ছেড়ো না তার হাত – তোমাকে ছাড়া সে যে একেবারেই একা।
সে যে তোমায় বেসেছে ভাল সবটুকু বুক দিয়ে- ভালবাসা আমার-

তোমাকে যে তার বড় প্রয়োজন, আমি তো তোমার কাল আর তুমি তার আজ,
আস্থা রেখো, তোমার জন্য আজ যে সে করতে পারে জয় সমর আর ভয়।
হৃদয় আমার – তুমি তো আজো আমার হাজারো নক্ষত্রে সাজানো নীলাভ গগন
আর তার কাছে তুমি যে ধ্রুবতারা।

অটোয়া, কানাডা