অটোয়া, শনিবার ২৭ নভেম্বর, ২০২১
যদি ঘুম না আসে - জাহিদ হাসান

দি ঘুম না আসে তবে নিমন্ত্রণ রইলো, 
এলোচুলেই চুপটি করে জানালা খুলো,
জ্যোৎস্না স্নানে কুহেলি ভেঁজা বাতাস ছুঁয়ে দিও,হাতের শীতল অনুভূতি ভ্রু ঢাকা চুল 
আর কৌতূহলী বুকের কম্পনে ছুঁয়ে নিও।

আমিও ছুঁয়েছি বাতাস তোমাকে ছোঁয় তাই,
উড়িয়েছি অনেক কথা,যা বলতে চেয়েও বহুবার পরাজিত করেছে আমার ইচ্ছের তীব্রতাকে সংশয় আর নীরবতা।
স্পর্শে তুমি তা বুঝে নিও,জানালা খুলো।

জোনাকির পাখা রাঙিয়েছি এক নিমেষ দৃষ্টির আলোয়,পিপাসিত বড়োই পিপাসিত কনজাংটিভা,তবুও তাতে অঙ্কিত কায়ার প্রতিফলনই জ্বলে নেভে জোনাকির পাখায়,
কাছে গেলে তুমি দেখে নিও,জানালা খুলো।

রাতের বাতাসে উড়ে চলা আঁধার আমার পিয়ন,রোজ রাতে আমার ভাবনাগুলো খায় বিনিময়ে আমার চিঠি নিয়ে যায়,অজস্র কথা হাতে নিয়মিতই দাঁড়ায় তোমার ইচ্ছের বদ্ধ জানালায়,তুমি ঘুমে বিভোর,তাই কড়া নাড়েনা থাকে দ্বিধা আর মৌনতায়।

তোমার ঘুমন্ত চোখের পাপড়ি,ঠোঁট আর নিক্ষিপ্ত উষ্ণ নিশ্বাসের কল্পরূপ হাতে ফিরে আসে,লেখার উপযোগী হয় আমার সজাগ কলমের কালি গুলো,
তবে আজ….যদি ঘুম না আসে,
নিমন্ত্রণ রইলো,এলোচুলেই চুপটি করে  জানালা খুলো,
মৃদু হাসি আর চাহুনির এক চিলতে আলোয় আঁধারের ভাঁজে লেখা অব্যক্ত কথা গুলো পড়ে নিও,প্রথমেই দেখবে সেথায় "ভুলিনি….আড়ালে থেকেই খুব ভালোবাসি তোমায়"।

জাহিদ হাসান
গাইবান্ধা, বাংলাদেশ।