অটোয়া, শনিবার ২৭ নভেম্বর, ২০২১
শীতল চট্টোপাধ্যায় এর দু'টি কবিতা

শান্ত হেমন্ত
তু আয়োজনে হেমন্ত আপ্যায়ন৷
চাষি হাতে ধান কাটা কাস্তে দেয়
হেমন্ত হাত৷
ধানকে সোনা ভাবনায় ভাবিয়ে
হেমন্ত হাসতে শেখায় চাষি বউকে৷
অচঞ্চল হেমন্ত শরীরে ভাসে
শিশিরের উড়ো কণা, পরিয়ে দেয়
সবুজ পাতার কানে, ঘাসের শীর্ণ কপালে৷
প্রকৃতি - প্রান্তর
হেমন্ত সাজ উপহারে সজ্জিত৷
অঘ্রাণী মাঠের আলপথে,
পাড়ার গলি খুঁজে,
বনের ভেতর শুকনো পাতা মাড়িয়ে
নতুন শীত হাঁটে হেমন্তের হাত ধরে,
আগড়ে ধান ঝাড়ার শব্দের পাশে
নিঃশব্দে দাঁড়িয়ে থাকে
শান্ত হেমন্ত৷

হারাতে -হারাতে
লম বদলানোর মাঝে
থেকে যায় অবদলের আঙুল গুলো৷
ভাবনার হারানো দেশে হারাতে - হারাতেও
ফিরে আসে মন তার-
আপন অবস্থানেই৷
এক জীবনই হাসিময়ে ভাসমান কিংবা
ক্রন্দনরতয় নিমজ্জমান৷
ভালো - মন্দ, প্রাপ্তি - ত্যাগ বা
অজানা আগন্তুকে আকস্মিক আক্রান্তে
কিছুটা রক্তক্ষরণ,
দেহাংশের কিছু বিসর্জন পরেও
হারানোর সাথে আপোশ না করে
জীবন, জীবন নামের অবস্থানেই৷

শীতল চট্টোপাধ্যায়
জগদ্দল, উত্তর ২৪ পরগণা