অটোয়া, শনিবার ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯
বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় ‘বাকাওভ’ এর কমিটি গঠিত

আশ্রম সংবাদঃ “বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে ‘বাংলাদেশ কানাডা এসোসিয়েশান অব অটোয়া ভ্যালী’ (বাকাওভ) আমার কাছে ভিন্ন মাত্রা বহন করে। অটোয়ায় অনেকগুলো সংগঠনের মধ্যে বাকাওভ আমার সবচেয়ে প্রিয় সংগঠন। কারণ, ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় অটোয়ায় বসবাসকারী বাংলাদেশীরা, বাংলাদেশের জনগণ, মুক্তিযোদ্ধাদেরকে আর্থিক সহযোগিতা প্রদানের লক্ষ্যে একত্রিত হন। সেই সাহসী দেশপ্রেমিক মানুষগুলোই পরবর্তীতে কানাডিয়ান সরকারের কাছে যুদ্ধকবলিত বাংলাদেশ এবং অসহায় জনগণের অবস্থা তুলে ধরার জন্যে ‘বাংলাদেশ সমিতি’ গঠন করেন, যাহা এখন ‘বাকাওভ’ নামে পরিচিত। অটোয়াতে আসার পর থেকেই বাংলাদেশের স্বাধীনতার সমান বয়েসী এই সংগঠনের সাথে আমি ওতপ্রোতভাবে জড়িত। এই বৎসর ‘বাংলাদেশ কানাডা এ্যাসোসিয়েশন অব অটোয়া ভ্যালী’র (২০১৮-১৯ কার্যকরী পরিষদ) নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করতে পেরে আমি আনন্দিত এবং গর্বিত। আমি চেষ্টা করেছি নির্বাচনের মাধ্যমে অটোয়াবাসী বাংলাদেশীদেরকে ‘বাকাওভ’-এর একটি ভাল কমিটি উপহার দিতে। আমার বিশ্বাস আমি তা করতে পেরেছি।”       
১৫ জুলাই, ২০১৮ইং স্থানীয় স্যান্ডিহীল কমিউনিটি সেন্টারে, ‘বাংলাদেশ কানাডা এ্যাসোসিয়েশন অব অটোয়া ভ্যালী’র বিদায়ী সভাপতি এনায়েতুর রহমান (আঙ্গুর) পরিচালিত ২০১৮-১৯ কার্যকরী বৎসরের জন্য নবনির্বাচিত পরিষদের নিকট দায়িত্ব হস্তান্তর অনুষ্ঠানে নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন অত্যন্ত আবেগজড়িত কন্ঠে উপরোল্লেখিত কথাগুলো বলেন। 

নতুন সভাপতি শাহ্‌ বাহাউদ্দিন শিশিরকে দায়িত্ব বুঝিয়ে দিচ্ছেন বিদায়ী সভাপতি এনায়েতুর রহমান আঙ্গুর। পাশে নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন।

বাকাওভ-এর নবনির্বাচিত কমিটির সাথে বিদায়ী সভাপতি এনায়েতুর রহমান, নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন এবং বাকাওভ পুনর্গঠন কমিটির কো-চেয়ারম্যান কবির চৌধুরী।    

উল্লেখ্য যে, ২২শে অক্টোবর, ২০১৭ইং সৈয়দ ফারুক আনোয়ার মিন্টুকে পুরাতন এই সংগঠনটির পুনর্গঠনের দায়িত্ব দেওয়া হয়। তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ কানাডা এ্যাসোসিয়েশন অব অটোয়া ভ্যালীর জন্যে নতুন সদস্য সংগ্রহ এবং নির্বাচনের মাধ্যমে যোগ্যতা সম্পন্ন কার্যকরী পরিষদ গঠন করার উদ্যোগ নেওয়া হয়। পুনর্গঠন প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে ২৪ জুন,২০১৮ইং ‘বাকাওভ’-এর সদস্য হওয়ার শেষ তারিখ নির্ধারণ করা হয় এবং নির্বাচনের জন্যে ১৫ জুলাই, ২০১৮ইং ধার্য্য করা হয়। ‘বাকাওভ’-এর এই বহু প্রতীক্ষিত নির্বাচনে, সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকপদসহ মোট ১১টি পদের মধ্যে ৯টি পদে, ‘বাকাওভ’-এর ৯ জন সম্মানিত সদস্য নির্বাচন কমিশনারের কাছে তাদের মনোনয়ন পত্র জমা দেন। 
মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া সদস্যরা হলেনঃ
সভাপতি পদের জন্য- শাহ্‌ বাহাউদ্দিন (শিশির), 
সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য- আছিয়া বেগম (ঝুমুর), 
কোষাধ্যাক্ষ পদের জন্য- আবু নোমানী (শিবলী), 
সাংগঠনিক সম্পাদক পদের জন্য- কাজী নাজমুল হক (হীরক), 
সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদের জন্য- সাদিকা পারভীন (চন্দনা), 
আইটি সম্পাদক পদের জন্য- ফিদা আদিব বখ্‌ত, 
খেলাধুলা সম্পাদক পদের জন্য- তারিক সিকান্দার, 
কার্যকরী সদস্য(১) পদের জন্য- মহসীন আলী, 
কার্যকরী সদস্য(২) পদের জন্য- মরতুজা খান। 
সহ-সভাপতি এবং জনসংযোগ সম্পাদক পদের জন্য কোন মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়া হয়নি। 
নির্বাচন কমিশন কর্তৃক প্রদত্ত্ব মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার নির্ধারিত তারিখ ৪ জুলাই, ২০১৮ইং উপরোল্লেখিত সদস্যবৃন্দ ছাড়া অন্য কোন সদস্য ‘বাকাওভ ২০১৮-১৯ কার্যকরী বৎসর’-এর পরিষদে নির্বাচিত হওয়ার জন্যে মনোনয়ন পত্র জমা না দেওয়ায় নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন ১০ জুলাই, ২০১৮ইং উপরোল্লেখিত প্রার্থীদেরকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় ‘বাংলাদেশ কানাডা এ্যাসোসিয়েশন অব অটোয়া ভ্যালী’ (বাকাওভ)-এর ২০১৮-২০১৯ কার্যকরী বৎসরের পরিষদের স্বস্ব পদে নির্বাচিত হিসাবে ঘোষণা করেন।  
অটোয়া, কানাডা।