অটোয়া, বুধবার ১৯ জুন, ২০২৪
কবির স্বপ্ন বাড়ছে গোকুলে – হিমাদ্রী রায়

১৯৭৭ সনের কোন এক শেষ রাতে, সাহসী স্বপ্ন এসে ধরা দিয়েছিল আপনার চোখে। স্বপ্নকে জাগিয়ে রাখলেন পঙক্তিতে, ভালবাসার কথা বললেন ভক্তিতে।
যখন কবিতাটি পড়া হল, যেন আঁধার দেশে গ্রহণ শেষে সূর্যোদয় হলো।
মাসটি ছিল ফাল্গুন মাস, রাজপথে রক্ত বেয়ে আসা ভাষার মাস। আপনার সাহসী  উচ্চারণ মশালের মত জ্বলে উঠেছিল বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে।
যারা প্রত্যক্ষ করেছে সেই আগুনের আঁচ, তাঁরা কি ভূলে যাবে সেই ভয় ভাঙার ক্ষণ।
ঘার ছেড়ে পড়ে থাকা সমবেত চেতনারা উঠে দাঁড়িয়েছিল, আপনার শব্দের উপর ভর করে, প্রসবিত বাছুর উঠে দাঁড়ায় যেমন।
আর সূর্যোদয় থেকে শুরু হয়েছিল, নতুন করে মুজিবের কথা বলা। শুরু ঘুরে দাঁড়াবার পালা।
এরপর ইতিহাসের উদ্যান সৈকতের জনস্রোত আবার এসে মেশে জনতার মোহনায়।
রেসকোর্স  মোড়ের গোলাপ, শহীদ মিনারের রক্তাক্ত ইট, আগুন রাঙা পলাশ একদিন শাসনদন্ড হাতে রাজ্যপাট সাজালো।
থালা ভর্তি ভাত হবে, মাথার উপর ছাদ হবে, যৌথ খামারে সুখের সংসার হবে, ধর্ম যার যার রাষ্ট্র সবার হবে।
কবি বুঝলেন স্বপ্ন বুঝি সত্যি হলো।
সব সকালের ভবিষ্যৎ বদলে যায় সন্ধ্যায়, রাজনীতি গিরগিটির মত রঙ বদলায়, যা কিছু অর্জন, বুঝি মুছে যায় চাটাদের লেপে দেয়া কালিমায়।
বিধির বিধান এই ছিলো ভালে, হে কবি আরো অনেক কিছুই দেখতে হবে এই ঘোর কলি কালে।
ক্ষমতার উচ্ছিষ্টভোগি, পদকের পিছু ছুটা যত কবি সবাই আছে রসে-বসে।
রাষ্ট্র এখন বেনিয়া ও ধর্ম ধ্বজাদারিদের কব্জায়, প্রগতিশীল ভেকে, বিদ্বেষের বীজ বুনে জাতির মজ্জায়।
বর্ষীয়ান কবি চরণ টলিতে টলিতে চলে, ভগ্ন শরীরে মোটা ফ্রেমের ভিতর দিয়ে অতীত দ্যাখেন আসন্ন সন্ধ্যায়, কালো কোকিলটি এখনো ডালে বসা স্থির,কেমন এক বিষাদের সুর গম্ভীর। 
আদর্শ বিপন্ন মানুষ ঘেরা, বিষণ্ণ  শতবর্ষের মুজিব, স্নায়ু দূর্বল গণতন্ত্রের পতাকা তলে।
মুজিব তোমাকে ভালবেসে কথা বলার মঞ্চ আজ স্তাবকের দখলে।
প্রচলিত হাওয়ার বিপরীতে যখন আপনাকে দেখি জাগ্রত অবিচল এই মূর্ছিত, পীড়িত দেশে, 
এক তপ্ত শঙ্খধ্বনি বাজে লক্ষ মুজিবের মাঝে।
আজো আপনার দগ্ধ শব্দ কন্ঠে আওয়াজ তোলে, নিরবে সয়ে যাওয়া মধ্যবিত্ত ,আজন্ম চুপ থাকা করুণ কেরানী,জীবন সংগ্রামে কখনো না জেতা মানুষ বাড়ছে দলে-দলে।
তাদের বোধের ভিতরে জন্ম নেয়া শব্দ বেড়ে উঠছে গোকুলে যারা একদিন গর্জে উঠবে, মিছিলে শ্লোগানে,
মুজিব আদর্শের রোদ দাবানল হয়ে ছড়িয়ে পড়বে নষ্ট রাজনীতির বাগানে।
এই মুজিব বর্ষে দাঁড়িয়ে, আমি পোশাকি ভালবাসার কথা বলতে আসিনি,
আমি মুজিবের আদর্শ কে ফিরিয়ে নিতে এসেছি।

হিমাদ্রী রায় । টরন্টো, কানাডা