অটোয়া, সোমবার ২৩ মে, ২০২২
এসো সাজিয়ে দিই - মৈত্রেয়ী সিংহরায়

সেই কখন থেকে তোমাকে 
খুঁজে চলেছি.....
তুমি কি সেই বড়ো থামটার পিছনে
লুকিয়ে পড়েছ?
চিলেকোঠায়? সেই ঝুলন্ত বারান্দার
এককোণে অন্ধকারে?
তোমার এই বিশাল বাড়ির আনাচ
কানাচ তো আমার খুব চেনা,
কোথায় সমুদ্র, কোথায় নদী,
কোথায় পাহাড়, ভাঙা পাঁচিল,
পাঁচিলের ওপারের বড়ো বনটা.....
কতদূর.... যেতে, পার হতে কতো
সময় লাগে......
সব সব আমার জানা।
তোমাকে খুঁজে না পেয়ে হতাশায়
ডুবে যাচ্ছি।
বড়ো বড়ো দরজা পেরিয়ে
কাঠের ঘোরানো সিঁড়িটা দিয়ে
নেমে এলাম.....
কী ভীষণ অন্ধকার, কী গভীর নির্জনতা,
মাথার ওপর দিয়ে হুড়মুড়িয়ে
একঝাঁক পায়রা উড়ে গেল...
আরশোলা গুলো ইতস্তত ঘোরাফেরা করছে.....
সোঁদা গন্ধ....এই পরিত্যক্ত ঘরে
কেন তুমি লুকিয়ে আছো পৃথিবী?
এই অসুখ তো সেরে যায়,
সেরে যাবে।
এসো তোমাকে নতুন করে সাজিয়ে দিই।

মৈত্রেয়ী সিংহরায়। মেমোরি, বর্ধমান