অটোয়া, শুক্রবার ২০ মে, ২০২২
বেভুলো এক পান্থ - মোহাম্মদ ইলইয়াছ

র কদ্দূর যেতে হবে জানিনা, এ পথের শেষ কোথায়? 
মাঠ- প্রান্তর পেরিয়ে অরণ্যে সবুজাভ ছায়ায় এসে দাঁড়িয়েছি
দেখা পাইনি আকাঙ্ক্ষার প্রতিচ্ছবি, স্বপ্নের না দেখা প্রতিমাকে
যোজন যোজন পথ হেঁটেছি, মনটা বেঁধেছি একতারার সাথে। 

আর কদ্দূর যেতে হবে জানিনা,  এ অভিযাত্রার পরিসমাপ্তি কবে ঘটবে? 
নদীর স্রোতে হারিয়ে ফেলছি- সকল মূলধন, ভালোবাসার দিনপঞ্জি-
দেখা হয়নি- তবু লীলাবতীর সঙ্গে,  এ যেন হাজার বছরের প্রতিজ্ঞা
নীল আকাশের নক্ষত্রপুঞ্জের মতো চাঁদনি আলোয় ক্ষণিক লুকোচুরি। 

আর কদ্দূর যেতে হবে জানিনা, ভ্রান্ত পথিকের মতো তবুও হাঁটছি
জানি, স্বপ্নের লাল বীথি হলুদ রঙে আমার পৃথিবী গিলে খাবে-
আমি পান্থ বিলাসে একাকী শুনবো সকল প্রস্থানের বিদায়ী গান
আমাকে শোনাবে না কেউ জন্মতিথির পদাবলি, জন্মান্তরের সুর। 

আমি হেঁটেছিলাম এই গ্রহের অভিলাষী সাগরের কূলে-
অশান্ত ঢেউ-গুনে, শেষ বিকেলে ছায়ায়, যেন আমার যাত্রা হলো শেষ।

মোহাম্মদ ইলইয়াছ
শাহজাদপুর,  কোম্পানীগঞ্জ
নোয়াখালী,  বাংলাদেশ।