অটোয়া, সোমবার ২৩ মে, ২০২২
জহুরুল ইসলাম-এর দু’টি কবিতা

ঢেউ
সুনামি সতর্ক জারি হওয়ার আগেই
প্রবল একটা ঢেউ
পৃথিবীর গায়ে এসে পড়ে।

চাঁদের আগুনে পোড়া পৃথিবীর দেহ
লোনাজলে ভেসে যায়।
দোলনার মতো দোলে স্বপ্নের 
মাঠ-

সারারাত শিশিরের স্নেহে
মায়াবী রাতের কোলে শুয়ে থাকা প্রেম,
নক্ষত্রের নরম আগুনে
জেগে ওঠে।

এখন- সোনালি চাঁদ ডুবা এই রাতে,
পৃথিবী তলিয়ে যায়
তীব্র জলোচ্ছ্বাস্বে;
ভারী পাথরের মতোন...

ডুব
বিশাল জমাট অন্ধকার,
বন্যার জলের মতো প্রবল আবেগে 
তেড়ে আসে।

গ্রামের মোড়ের কোণে
চায়ের কালো কাপের মতো
অন্ধকার- সেই থেকে এখন অবধি
জমা হয়ে আছে।

আপাদ মস্তক ডুবে যাই,
ক্রমে ডুবে যাই;
এ যেন চোরাবালিতে ডুব-

চোখের চারপাশে যেন আঁধার পাহাড়,
কালো আঁধারের
ভিতরে তলিয়ে যাই...

জহুরুল ইসলাম 
মির্জাপুর, দাপুনিয়া
পাবনা সদর, পাবনা