অটোয়া, শনিবার ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯
টি পু সু ল তা ন এর দু’টি কবিতা

সংসার

কুটকুটে গাঢ় হলুদ ফেব্রিকসের মতো বৈকালের রোদ
নেমে এসে শর্ত জুড়ে দিয়েছে যেন
মাছকাঁটা খণ্ডে ছড়ানো নীল আকাশ,নোম্যান্স দূরে পাটগাছ-
দখিনে লেফটরাইট খেলা করছে দুদণ্ড পায়ে
মোড়লবাড়ীর বউ,চুলকালো মাথা-খেজুরগাছের ডাটপাতায়
বাধা একঝোপ ঘাস,দুলছে;খুব দ্রুততাল ফিরছে বাড়ির পথ-
-গ্রাম,পল্লীবধূ-আহার,সংসারপাতা ঘন নিখুঁত সাজ!

বুকের ভেতর যন্ত্রণার আস্ফালন

এই তো সেদিন বালুর কাছে
তার পায়ের চিহ্ন অমনি আছে
যতদূর হেঁটে গেছে
খানিক পরে কিছুক্ষণ
থেমে থেমে পথের মতো বেঁকে-
স্নিগ্ধ ছোঁয়া নরম চোয়াল রেখে
ডাহুক পাখির পোষ না মানা
আবার দেখা অজান্ত দীর্ঘশ্বাসে-

ঘাসের ওপর সরোদ নাচে
নেশার জীবন মৃদু হাসে
মুগ্ধ গলায় বলতে গিয়ে
চোখের ভেতর সংকোচ বাঁধে
একজোড়া সুখ বেদনার বন্ধন...
ঝরাপাতায় অস্ত ফেরে
লুটিয়ে পড়ে সরু বৈকাল-
বুকের ভেতর যন্ত্রণার আস্ফালন!

টি পু সু ল তা ন
১৬ জুলাই ২০১৯ ইং | ১ শ্রাবণ ১৪২৬ | ঢাকা