অটোয়া, মঙ্গলবার ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯
চাওয়া - ফরিদ তালুকদার

ঙি আচ্ছাদনের চোখ ঢেকে দেয় নীলাকাশ
ব্যস্ততা গ্রাস করে সফেন সমুদ্র 
দেখিনি কোনদিন
ধান শালিকের উৎসবে মাতা 
হেমন্তের বিকেল

রোদের শরীরে জল ফুটিয়ে 
চাওয়া গুলো ধাবমান আহ্নিক গতিতে 
ভাগ্যের কিছু শিলালিপি হাতে 
অশীতিপর সময় থাকে অচেনা ঠিকানায়

দেহের চেয়ে বড় সঞ্চয় নিয়ে 
লাল পিঁপড়া পাড়ি দেয় বন্ধুর পথ
পাঁচ প্রজন্মের ক্ষুধা চোখে অতি সঞ্চয়ী প্রাণ
শঙ্কা  লোভের সানুদেশে গড়ে কেবল 
চাওয়ার বসত ঘর

ফেসবুক চায় ওখানেই থাকি সারাদিন 
গুগল চিনে নিতে চায় আমাকে আমারও বেশী
ঈশ্বর চায় মগ্ন থাকি কেবল তারই উপাসনায়
ডায়োজিনাসের হারিকেন চায় একজন সৎ মানুষ 
হাতের তালুতে হৃদয়ের পড়তে পড়তে
দাগ কেটে কেটে  আমি চাই শুধু তোমারই প্রেম

এ এক গোলকধাঁধার পৃথিবী 
জীবন আসে চলে যায় দুরন্ত চাকায়
সন্ধ্যাগুলো কোথাও খুব বিবর্ণ হয়ে রয়
নূতন স্বপ্নেরা তবু ডানা মেলে অবিরাম
আকাশকে বলি আমি হতে চাই
তোমার অসীম 

পথ হারানো পথে
জীবনকে কাছে ডাকি ফের
নীরব কান্নায়..!!

ফরিদ তালুকদার । টরন্টো